001_160092
চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে জাহাজ ভাঙা ইয়ার্ডে গ্যাস সিলিন্ডার বিষ্ফোরণে আট শ্রমিক দগ্ধ হয়েছেন। এদের মধ্যে চারজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

শনিবার সকাল ৮টার দিকে কুমিরা সাগর উপকূলে অবস্থিত শীতল শিপ ব্রেকিং ইয়ার্ডে এই দুর্ঘটনা ঘটে।

আহত পাঁচ শ্রমিককে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

তারা হলেন- কুড়িগ্রামের পদ্মারছাড়া গ্রামের শাহজাহান(১২, একই এলাকার মোকসেদুল(২৬), খুলনার দীঘলিয়া থানার মোল্লাডাঙা গ্রামের মো. নাদিম (২৫), একই গ্রামের আল-আমিন (২০), নোয়াখালীর মাইজদীর চরদোয়া গ্রামের খোকন (৩৫)।

আহত অপর তিনজনকে নগরীর আল আমিন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

তারা হলেন-চট্টগ্রামের মান্নান (২৪), কুড়িগ্রামের আবদুর রউফ (২৫), খুলনার দীঘলিয়া থানার মরুডাঙা গ্রামের পাশা (৩২)।

চমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন মো. শাহজাহান বলেন, লোহা কাটার সময় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে আগুন লেগে যায়। এতে তারা দগ্ধ হন।

হাসপাতালের রেজিস্ট্রার ডা.রেজিনা ইসলাম বলেন, ‘দগ্ধদের চিকিৎসা চলছে। এদের মধ্যে চারজনের শরীরে ২০ শতাংশের বেশি পুড়ে গেছে। তাদের অবস্থা আশঙ্কাজনক।’

দুর্ঘটনার খবর পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন ভ্রাম্যমাণ ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারি কমিশনার (ভূমি) মাহাবুবুল আলম।

তিনি ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, ‘ইয়ার্ডে শ্রমিকদের নিরাপত্তা সুরক্ষা না থাকার কারণে এই দুর্ঘটনা ঘটেছে।’

শীতল এন্টারপ্রাইজের মালিক দিদারুল আলম ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, গ্যাস সিলিন্ডার বিষ্ফোরণের কোনো ঘটনা ঘটেনি। সিলিন্ডারে গ্যাস লিগ হয়ে চার জন শ্রমিক সামান্য আহত হলে তাদের উন্নত চিকিৎসার জন্য চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

সীতাকুণ্ড মডেল থানার ওসি ইফতেখার হাসান ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। এই ব্যাপারে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

বাহাদুর বেপারীপ্রথম পাতা
চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডে জাহাজ ভাঙা ইয়ার্ডে গ্যাস সিলিন্ডার বিষ্ফোরণে আট শ্রমিক দগ্ধ হয়েছেন। এদের মধ্যে চারজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। শনিবার সকাল ৮টার দিকে কুমিরা সাগর উপকূলে অবস্থিত শীতল শিপ ব্রেকিং ইয়ার্ডে এই দুর্ঘটনা ঘটে। আহত পাঁচ শ্রমিককে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তারা হলেন- কুড়িগ্রামের পদ্মারছাড়া গ্রামের...