1437622812
সিরাজগঞ্জে বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম পাশে বাস দুর্ঘটনায় ১৭ জন নিহতের ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটি তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেছে।

কমিটির প্রধান অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) এ এইচ এম আনোয়ার পাশা জানান, দুর্ঘটনার সময় ঘুম ঘুম ভাব ও রং সাইড দিয়ে গাড়ি চালানো এবং ফিটনেস না থাকাকে দায়ী করেছে কমিটি।

অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট কামরুল হাসান বুধবার সন্ধ্যায় জেলা প্রশাসক মো. বিল্লাল হোসেনের কাছে এ প্রতিবেদন দাখিল করেন। পরে তিনি সড়ক পরিবহণ ও সেতু মন্ত্রণালয়ে ফ্যাক্স বার্তা প্রেরণ করেছেন বলে জানা গেছে।

দাখিল করা প্রতিবেদনে ওই দিন বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম মহাসড়কের মুলিবাড়ি রেল ক্রসিং এলাকার দুর্ঘটনার জন্য চট্টগ্রাম থেকে ছেড়ে আসা সাবির পরিবহনের চালককেই দায়ী করা হয়েছে। প্রতিবেদনে উল্লেখ করা হয়েছে যে, ওই চালক অতিমাত্রার গতিতে বাস চালাচ্ছিলেন এবং রং সাইড দিয়ে গাড়ি চালানোর কারণেই এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। এছাড়া বলা হয়েছে, উভয় বাসের চালক তন্দ্রাচ্ছন্ন ছিলেন এবং বাস দু’টিতে ধারণক্ষমতার বেশি যাত্রী ছিল। একই সঙ্গে তদন্ত কমিটি সেতুর পশ্চিমপাড় থেকে মহাসড়কের ২২ কিলোমিটার এলাকাতে রোড ডিভাইডার, স্পিড ব্রেকার এবং সড়ক চার লেনে উন্নীতকরণের জন্যও সুপারিশ করা হয়েছে কর্তৃপক্ষের নিকট।

উল্লেখ্য, ঈদের পরদিন ভোরে জেলা সদরের মূলিবাড়ীতে রংপুর থেকে ঢাকাগামী আজাদ পরিবহন এবং চট্টগ্রাম থেকে রংপুরগামী সাবির পরিবহনের সংঘর্ষে ওই ১৭ জন নিহত হয়েছিলেন।

সুরুজ বাঙালীপ্রথম পাতা
সিরাজগঞ্জে বঙ্গবন্ধু সেতুর পশ্চিম পাশে বাস দুর্ঘটনায় ১৭ জন নিহতের ঘটনায় গঠিত তদন্ত কমিটি তদন্ত প্রতিবেদন দাখিল করেছে। কমিটির প্রধান অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) এ এইচ এম আনোয়ার পাশা জানান, দুর্ঘটনার সময় ঘুম ঘুম ভাব ও রং সাইড দিয়ে গাড়ি চালানো এবং ফিটনেস না থাকাকে দায়ী করেছে কমিটি। ...