1437984833
মৃত্যুদণ্ডাদেশ প্রাপ্ত বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর মানবতাবিরোধী অপরাধের রায়ের কপি ফাঁসের ঘটনায় জড়িত তার আইনজীবী ব্যারিস্টার ফখরুল ইসলামসহ সাতজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের বিষয়ে শুনানির জন্য আগামী ২০ সেপ্টেম্বর দিন ধার্য করেছেন ট্রাইব্যুনাল।

সোমবার মামলাটির অভিযোগ শুনানির জন্য দিন ধার্য ছিল। কিন্তু সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর স্ত্রী ফারহাদ কাদের চৌধুরীর অসুস্থতার অজুহাতে আইনজীবী আদালতে সময় আবেদন করেন। শুনানি শেষে ঢাকার সাইবার ট্রাইব্যুনালের বিচারক এসএম সামছুল আলম পরবর্তী এ দিন ধার্য করেন।

এ মামলার আসামিরা হলেন- সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর স্ত্রী ফারহাদ কাদের চৌধুরী, ছেলে হুম্মাম কাদের চৌধুরী, ব্যারিস্টার ফখরুল ইসলাম (কারাগারে) ও তার জুনিয়র আইনজীবী মেহেদী হাসান (পলাতক), ম্যানেজার এ কে এম মাহবুবুল হাসান (কারাগারে), আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের অফিস সহকারী (সাঁটলিপিকার) ফারুক হোসেন (কারাগারে), পরিচ্ছন্নতাকর্মী নয়ন আলী (কারাগারে)।

২০১৩ সালের ১ অক্টোবর বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাউদ্দিন কাদেরকে মৃত্যুদণ্ডাদেশ দেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল-১। তবে রায়ের আগেই সাকা চৌধুরীর স্ত্রী ও তার পরিবারের সদস্য এবং আইনজীবীরা রায় ফাঁসের অভিযোগ তোলেন। তারা ‘রায়ের খসড়া কপি’ সংবাদকর্মীদের দেখান।

বাহাদুর বেপারীআইন-আদালত
মৃত্যুদণ্ডাদেশ প্রাপ্ত বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর মানবতাবিরোধী অপরাধের রায়ের কপি ফাঁসের ঘটনায় জড়িত তার আইনজীবী ব্যারিস্টার ফখরুল ইসলামসহ সাতজনের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের বিষয়ে শুনানির জন্য আগামী ২০ সেপ্টেম্বর দিন ধার্য করেছেন ট্রাইব্যুনাল। সোমবার মামলাটির অভিযোগ শুনানির জন্য দিন ধার্য ছিল। কিন্তু সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরীর...