1439220621
সাংবাদিক সাগর-রুনি দম্পত্তি হত্যাকাণ্ড নিয়ে জেলা পুলিশ সুপার দফতরে ডাকযোগে পাঠানো এক রহস্যময় অভিযোগ নিয়ে গাইবান্ধায় নতুন করে আলোচনার ঝড় উঠেছে। এ নিয়ে পুলিশ তদন্ত কাজ অব্যাহত রাখলেও সাংবাদিকদের তথ্য না দেওয়ায় এ ব্যাপারে নানামুখি আলোচনা আরো বিস্তার লাভ করেছে। তবে অভিযোগকারী জিয়াউল হক এ অভিযোগ করেনি উল্লেখ করে সোমবার গোবিন্দগঞ্জ থানায় উপস্থিত হয়ে একটি সাধারণ ডায়েরি করেছেন।

গত কয়েক বছর আগে নিজ বাসায় নৃশংস হত্যাকাণ্ডের শিকার হন সাংবাদিক দম্পতি সাগর-রুনি। তবে দীর্ঘদিন পেরিয়ে গেলেও আইনশৃংখলা বাহিনী এ হত্যাকাণ্ডের কোন কুলকিনারা করতে পারেনি। প্রায় এক সপ্তাহ আগে ডাকযোগে এই হত্যাকাণ্ডের কিছু তথ্য ও অপরাধীর নাম ঠিকানাসহ একটি অভিযোগ আসে জেলা পুলিশ সুপারের দফতরে। ওই অভিযোগপত্রে অভিযোগকারী হিসাবে জেলার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার কামারদহ ইউনিয়নের মাস্তা কানিপাড়া গ্রামের খালেক ফকিরের ছেলে জিয়াউল ইসলামের ঠিকানা উল্লেখ রয়েছে।

ওই লিখিত অভিযোগ সূত্রে গোবিন্দগঞ্জ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এবিএম জাহিদুল ইসলাম ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, রস্তম সাংবাদিক নামে এক ব্যক্তি সাগর-রুনিকে হত্যার জন্য গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জের কানিপাড়া গ্রামের বাদশা কসাইসহ ৪/৫ কে ভাড়া করে ঘটনার রাতে ঢাকায় নিয়ে যায়। তারা সাগর-রুনিকে হত্যা করে নিবিঘ্নে পালিয়ে আসে। পরবর্তীতে এ চক্রটি নারায়নগঞ্জের ৭ খুনের কিলিং মিশনেও অংশ নেয় বলে ওই লিখিত অভিযোগে উল্লেখ করা হয়। তবে এ অভিযোগে রুস্তম সাংবাদিকের বিস্তারিত পরিচয় নিশ্চিত করা হয়নি।

জিয়াউল হকের পিতা খালেক ফকির হক ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, এ অভিযোগের বিষয়ে তিনি কিছুই জানেন না। জিয়াউল এ অভিযোগ করেনি।

অভিযুক্ত বাদশা কসাই ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, ‘খুন করা তো দূরের কথা এখন পর্যন্ত আমি ঢাকা শহর দেখিনি।’

ওসি এবিএম জাহিদুল ইসলাম জানান, অভিযোগটি আমলে নিয়ে তদন্ত করা হচ্ছে। তবে প্রাথমিক তদন্তে অভিযোগটি সত্য নয় বলে মনে হচ্ছে।

তিনি আরো জানান, ওই দুই পরিবারের মধ্যে জমি নিয়ে সম্প্রতি এক দ্বন্দ্বের সূত্র ধরে তৃতীয় পক্ষ এ অভিযোগ করেছে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

শুভ সমরাটঅন্যান্য
সাংবাদিক সাগর-রুনি দম্পত্তি হত্যাকাণ্ড নিয়ে জেলা পুলিশ সুপার দফতরে ডাকযোগে পাঠানো এক রহস্যময় অভিযোগ নিয়ে গাইবান্ধায় নতুন করে আলোচনার ঝড় উঠেছে। এ নিয়ে পুলিশ তদন্ত কাজ অব্যাহত রাখলেও সাংবাদিকদের তথ্য না দেওয়ায় এ ব্যাপারে নানামুখি আলোচনা আরো বিস্তার লাভ করেছে। তবে অভিযোগকারী জিয়াউল হক এ অভিযোগ করেনি উল্লেখ...