1441547211
গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার শোভাগঞ্জ গ্রামের কলেজ ছাত্র আবু তাহেরকে (২০) বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। রবিবার ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আশরাফুল মমিন খান এ দণ্ডাদেশ দেন।

জানা গেছে, আবু তাহের সাতমাস ধরে ওই কলেজের একই বর্ষের এক ছাত্রীকে প্রেম ও বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন। কিন্তু ওই ছাত্রী তার প্রস্তাবে রাজি ছিলেন না। কিন্তু আবু তাহের প্রায়ই ওই ছাত্রীকে উত্যক্ত করতেন। ওই রবিবার দুপুরে জেলা শহরের পলাশপাড়া এলাকা দিয়ে কলেজে যাচ্ছিলেন। এ সময় আবু তাহের আবারো তার পথরোধ করে বিয়ের প্রস্তাব দেন। প্রস্তাবে সাড়া দিতে আবারো অস্বীকৃতি জানালে আবু তাহের তাকে চরথাপ্পর, কিল-ঘুষি মারে। পরে ওই ছাত্রী কলেজে গিয়ে ঘটনাটি শিক্ষক ও অন্যান্য শিক্ষার্থীদের জানান।

খবর পেয়ে পুলিশ আবু তাহেরকে কলেজ চত্বর থেকে গ্রেফতার করে ও ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে। বিকেলে ভ্রাম্যমাণ আদালত আবু তাহেরকে এ সাজা দেয়।

ওই গ্রামের ছেলে তাহের গাইবান্ধা সরকারি বিশ্ববিদ্যালয় কলেজের ইতিহাস বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্র।

গাইবান্ধা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মেহেদি হাসান ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করেন।

ওয়াজ কুরুনীশেষের পাতা
গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জ উপজেলার শোভাগঞ্জ গ্রামের কলেজ ছাত্র আবু তাহেরকে (২০) বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়েছে। রবিবার ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ও সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আশরাফুল মমিন খান এ দণ্ডাদেশ দেন। জানা গেছে, আবু তাহের সাতমাস ধরে ওই কলেজের একই বর্ষের এক ছাত্রীকে প্রেম ও বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন।...