GULI
শিশু সৌরভ মিয়ার দু’পায়ে গুলি করার ঘটনায় শনিবার সন্ধ্যায় নিজের দুটি লাইসেন্সকৃত অস্ত্র জমা দিয়েছেন গাইবান্ধা-১ আসনের সংসদ সদস্য মো. মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন। তার শ্যালক তারিকুল ইসলাম সুন্দরগঞ্জ থানায় ৫০ রাউন্ড গুলিসহ একটি শর্টগান এবং তিন রাউন্ড গুলিসহ একটি পিস্তল জমা দেন।

শুক্রবার ভোরে উপজেলা শহরের ব্র্যাক মোড়ের গোপালচরণ এলাকায় কালাইয়ের ব্রিজের কাছে লিটনের ছোড়া গুলিতে সৌরভ দুইপায়ে গুলিবিদ্ধ হয়। এলাকাবাসীর অভিযোগ, এমপি লিটন প্রায় প্রতিদিনই মাতাল অবস্থায় ভোরের দিকে বাড়ি ফেরেন। ঘটনার দিন ভোর ছয়টার দিকে নিজের গাড়িতে করে সুন্দরগঞ্জ থেকে বামনডাঙ্গায় বাড়ি ফেরার পথে তিনি গুলি ছোড়েন।

ঘটনার পর থেকে আত্মগোপন রয়েছেন ক্ষমতাসীন দলের এই সংসদ সদস্য। কয়েক দফায় পুলিশ, র‌্যাবসহ আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী অভিযান চালিয়েও তার কোনো খোঁজ পায়নি। এমনকি তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোনটি ঘটনার পর থেকেই বন্ধ রয়েছে। ঘটনার পর এমপি লিটনের পরিবারের কেউ ঘটনা সম্পর্কে বা তার অবস্থান সম্পর্কেও মুখ খুলছেন না।

এদিকে লিটনকে গ্রেফতার ও বিচার দাবিতে উত্তাল হয়ে উঠেছে গোটা সুন্দরগঞ্জ উপজেলা। উপজেলার রাজনৈতিক মহল ও সূধি মহলসহ সর্বস্তরের মানুষের মধ্যে উত্তেজনাসহ ক্ষোভ বিরাজ করছে।

অস্ত্র জমা দেয়ার আগে সুন্দরগঞ্জ থানার ওসি (তদন্ত) জিন্নাত আলী ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, তার বাড়ি বামনডাঙ্গায় র‌্যাব ও পুলিশ কয়েকবার অভিযান চালিয়েছে। কিন্তু কাউকে পাওয়া যায়নি। তিনি আরো জানান, শুনেছি এমপি সাহেব ঢাকায় গেছেন। মোবাইল বন্ধ থাকায় যোগাযোগ সম্ভব হচ্ছে না।

http://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2015/10/GULI1.jpghttp://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2015/10/GULI1.jpgঅর্ণব ভট্টপ্রথম পাতা
শিশু সৌরভ মিয়ার দু’পায়ে গুলি করার ঘটনায় শনিবার সন্ধ্যায় নিজের দুটি লাইসেন্সকৃত অস্ত্র জমা দিয়েছেন গাইবান্ধা-১ আসনের সংসদ সদস্য মো. মঞ্জুরুল ইসলাম লিটন। তার শ্যালক তারিকুল ইসলাম সুন্দরগঞ্জ থানায় ৫০ রাউন্ড গুলিসহ একটি শর্টগান এবং তিন রাউন্ড গুলিসহ একটি পিস্তল জমা দেন। শুক্রবার ভোরে উপজেলা শহরের ব্র্যাক মোড়ের গোপালচরণ...