আদালত প্রতিবেদক ।
১৫ দিন রিমান্ড শেষ হওয়ার পর সোমবার রাজধানীর বংশাল ও গুলশান থানার নাশকতার মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিশেষ সহকারী অ্যাডভোকেট শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাসের বিরুদ্ধে দশ দিন করে ২০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেছে মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।
তবে ঢাকা মহানগর হাকিম আদালত শুনানির জন্য আগামী ৪ মার্চ দিন ধার্য করেছেন।

সোমবার রমনা থানার নাশকতার মামলায় পাঁচদিনের রিমান্ড শেষে তাকে ঢাকা সিএমএম আদালতে হাজির করেন মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা। এ সময় মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাকে কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন তদন্তকারী কর্মকর্তা। অন্যদিকে বংশাল ও গুলশান থানার নাশকতার দুই মামলায় দশ দিন করে ২০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেন দুই মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা। আদালত শুনানির জন্য ৩ মার্চ দিন ধার্য করেন। ঢাকা মহানগর হাকিম আহসান হাবীব রমনা থানার মামলায় তাকে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দেন। শিমুল বিশ্বাসের আইনজীবী সৈয়দ জয়নুল আবেদীন মেজবাহ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে ২০ ফেব্রুয়ারি তৃতীয় দফায় রমনা থানার নাশকতার মামলায় ঢাকা মহানগর হাকিম সত্যব্রত সিকদার পাঁচদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

১৫ ফেব্রুয়ারি শাহবাগ থানার নাশকতার মামলায় পাঁচদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন ঢাকা মহানগর হাকিম সরাফুজ্জামান আনসারী। ৯ ফেব্রুয়ারি ঢাকা মহানগর হাকিম সত্যব্রত সিকদার শাহবাগ থানার নাশকতার মামলায় পাঁচদিনের রিমান্ডের নেয়ার আদেশ দেন।

উল্লেখ্য, গত ৮ ফেব্রুয়ারি জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট দুর্নীতি মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার রায়ের পরপরই আদালত প্রাঙ্গণ থেকে শিমুল বিশ্বাসকে আটক করে গোয়েন্দা পুলিশ। তারপর থেকে তিন দফায় এপর্যন্ত লাগাতার ১৫ দিন রিমান্ডে রাখা হয় শিমুল বিশ্বাসকে।
খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

http://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2018/02/539.jpghttp://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2018/02/539-300x300.jpgশিশির সমরাটআইন-আদালত
আদালত প্রতিবেদক । ১৫ দিন রিমান্ড শেষ হওয়ার পর সোমবার রাজধানীর বংশাল ও গুলশান থানার নাশকতার মামলায় বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার বিশেষ সহকারী অ্যাডভোকেট শামসুর রহমান শিমুল বিশ্বাসের বিরুদ্ধে দশ দিন করে ২০ দিনের রিমান্ড আবেদন করেছে মামলা তদন্তকারী কর্মকর্তা।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের। তবে ঢাকা...