1442982145
আব্দুল শালাবি নামে আল কায়দার এক সদস্যকে সৌদি আরবে স্থানান্তর করেছে যুক্তরাষ্ট্র। মনে করা হয়, তিনি ওসামা বিন লাদেনের দেহরক্ষী ছিলেন। মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর জানিয়েছে, ২০০২ সাল থেকে আব্দুল শালাবি গুয়ানতানামো বে কারাগারে আটক ছিলেন। খবর বিবিসির।

খবরে বলা হয়, আব্দুল শালাবির বিরুদ্ধে অপরাধে সম্পৃক্ততার কোন অভিযোগ আনা হয়নি। তবে সৌদি আরবে যাওয়ার পর তাকে সেখানে পুনর্বাসন কেন্দ্রে কিছুদিন কাটাতে হবে।

৩৯ বছর বয়সী ওই বন্দি গত ১০ বছর ধরেই অনশন করছেন। তার আইনজীবী জানিয়েছেন, জীবনের শেষ দিনগুলো তিনি তার পরিবারের সঙ্গে কাটাতে চান।

২০০১ সালে পাকিস্তানি বাহিনী তাকে আটকের পর কিউবার গুয়ানতানামো বে কারাগারে পাঠিয়ে দেয়।

এই হস্তান্তরের পর কারাগারটিতে আরো ১১৪জন বন্দি রইল, যাদের মধ্যে ৫২ জনকে অন্যদেশে স্থানান্তরের সিদ্ধান্ত হয়েছে।

২০১৭ সালে নিজের প্রেসিডেন্সির মেয়াদ ফুরানোর আগেই গুয়ানতানামো বে কারাগার বন্ধ করে দিতে চান মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। যদিও কংগ্রেস ওই পরিকল্পনার বিরোধিতা করছে।

http://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2015/09/1442982145.jpghttp://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2015/09/1442982145-300x197.jpgঅর্ণব ভট্টআন্তর্জাতিক
আব্দুল শালাবি নামে আল কায়দার এক সদস্যকে সৌদি আরবে স্থানান্তর করেছে যুক্তরাষ্ট্র। মনে করা হয়, তিনি ওসামা বিন লাদেনের দেহরক্ষী ছিলেন। মার্কিন পররাষ্ট্র দফতর জানিয়েছে, ২০০২ সাল থেকে আব্দুল শালাবি গুয়ানতানামো বে কারাগারে আটক ছিলেন। খবর বিবিসির। খবরে বলা হয়, আব্দুল শালাবির বিরুদ্ধে অপরাধে সম্পৃক্ততার কোন অভিযোগ আনা হয়নি। তবে...