নিজস্ব প্রতিবেদক ।
রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠাতে মিয়ানমারের সঙ্গে সই করা বাংলাদেশের সমঝোতা স্মারক নিয়ে গভীর হতাশা প্রকাশ করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, মিয়ানমারে সেনাবাহিনীর বর্বরতা বন্ধ না করে এখনই রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানো হলে তা হবে ‘নরকে ঠেলে দেয়ার মতো’ ব্যাপার।এ বিষয়ে সকলকে সতর্ক থাকতে হবে। খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

তিনি বলেন, চুক্তির ফলে রোহিঙ্গারা ফিরে যেতে আস্থা পাবে কি না, তাদের নিরাপত্তা থাকবে কি না, গণহত্যার শিকার হবে কি না এই বিষয়গুলো সম্পর্কে এখনো কিছু জানানো হয়নি। এখনো মিয়ানমারের সেনাবাহিনী সেখানে নির্যাতন করছে। হত্যা-নিপীড়ন অব্যাহত রেখেছে। এখনো রোহিঙ্গারা প্রাণ বাঁচাতে পালিয়ে আসছে।

শুক্রবার নয়া পল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের সামনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে মির্জা ফখরুল এসব কথা বলেন।

মিয়ানমারের সঙ্গে বাংলাদেশ সরকারের সমঝোতায় কী কী রয়েছে তা জানতে চেয়ে মির্জা ফখরুল বলেন, মিয়ানমারের সঙ্গে বাংলাদেশ সরকারের চুক্তিতে রোহিঙ্গাদের সত্যিকার অর্থে নাগরিকের মর্যাদা দিয়ে ফিরিয়ে নেয়ার ব্যবস্থা থাকতে হবে। নয়তো এটা একেবারেই ব্যর্থ একটি সমঝোতা হবে। সমঝোতার বিষয়গুলো এখনো জনসম্মুখে আনা হয়নি। সমঝোতা স্মারক প্রকাশ করতে হবে।

প্রসঙ্গত যে, রোহিঙ্গাদের রাখাইনে ফেরতের বিষয়ে বৃহস্পতিবার মিয়ানমারের প্রশাসনিক রাজধানী নেপিদোতে স্টেট কাউন্সিলরের অফিসে দুই দেশের মধ্যে সমঝোতা চুক্তি হয়। এতে বাংলাদেশের পক্ষে পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ এইচ মাহমুদ আলী এবং মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সিলরের দফতরের মন্ত্রী খিও তিন্ত সোয়ে স্বাক্ষর করেন।
খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

http://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2017/11/634.jpghttp://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2017/11/634-300x300.jpgশিশির সমরাটজাতীয়
নিজস্ব প্রতিবেদক । রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠাতে মিয়ানমারের সঙ্গে সই করা বাংলাদেশের সমঝোতা স্মারক নিয়ে গভীর হতাশা প্রকাশ করে বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, মিয়ানমারে সেনাবাহিনীর বর্বরতা বন্ধ না করে এখনই রোহিঙ্গাদের ফেরত পাঠানো হলে তা হবে ‘নরকে ঠেলে দেয়ার মতো’ ব্যাপার।এ বিষয়ে সকলকে সতর্ক থাকতে...