1438603005
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কাউছার আহমেদ কৌশিকের বিরুদ্ধে ছিনতাইয়ের অভিযোগে মামলা হয়েছে। সোমবার দুপুর তিনটার দিকে নগরীর মতিহার থানায় মামলাটি দায়ের করেছেন ম্যাটেরিয়্যাল সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী সুমন রেজা।

এ বিষয়ে ভুক্তভোগী সুমন রেজা ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, ‘রবিরার রাতে মুন্নজান হলের সামনে বান্ধবীর সাথে কথা বলছিলাম। তখন ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কাইছার আহমেদ কৌশিকসহ চারজন আমার সামনে আসে। কোনো কথা বলার সুযোগ না কৌশিক আমার কাছ মোবাইল, মানিব্যাগ ও বিশ্ববিদ্যালয়ের আইডি কার্ড ছিনিয়ে নেয়। এ সময় আমাকে মারধরও করেন।’

তবে এ অভিযোগ অস্বীকার করে কাউছার আহমেদ কৌশিক ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, ‘আমি ঘটনাস্থলে ছিলাম না। ওই সময় আমি মাদার বখ্স হলে এক ছোটভাইয়ের কক্ষে গিয়ে ল্যাপটপে সিনেমা দেখছিলাম।’ অভিযুক্ত কৌশিক বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী।

বিষয়টি অবগত হয়েছেন জানিয়ে রাবি প্রক্টর অধ্যাপক তারিকুল হাসান ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, ‘ছিনতাই বা মারধরের ঘটনা ফৌজদারি অপরাধের আওতায় পড়ে। পুলিশকে সে ধরনের নির্দেশনা দেয়া রয়েছে। ভুক্তভোগী আইনের আশ্রয় নিলে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

এ বিষয়ে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি সাইফুর রহমান সোহগ ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, ‘অপহরণকারী, ছিনতাইকারী, চোর-ছেচড়ার কোনো স্থান ছাত্রলীগে নেই। এ ছিনতাইয়ের ঘটনায় জড়িতদের বিরুদ্ধে খোঁজ নিয়ে অভিযোগ প্রমাণিত হলে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হবে।’

নগরীর মতিহার থানার ওসি হুমায়ূন কবির বলেন, সুমন বাদী হয়ে কৌশিককে প্রধান আসামি করে অজ্ঞাত তিনজনসহ মোট চারজনের বিরুদ্ধে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। জড়িতদের বিরুদ্ধে যথাযথ আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।

শুভ সমরাটপ্রথম পাতা
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় (রাবি) শাখা ছাত্রলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক কাউছার আহমেদ কৌশিকের বিরুদ্ধে ছিনতাইয়ের অভিযোগে মামলা হয়েছে। সোমবার দুপুর তিনটার দিকে নগরীর মতিহার থানায় মামলাটি দায়ের করেছেন ম্যাটেরিয়্যাল সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী সুমন রেজা। এ বিষয়ে ভুক্তভোগী সুমন রেজা ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, ‘রবিরার রাতে মুন্নজান হলের...