88555_152
সিলেটে নির্মমভাবে নিহত শিশু রাজনের বাড়িতে গেলেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। গতকাল বিকালে মন্ত্রী রাজনের বাড়িতে গেলে রাজনের পিতা আজিজুর রহমান তাকে জড়িয়ে ধরে কাঁদলেন। বললেন, ‘আমি এই নির্মমতার বিচার চাই। আর কোন মা-বাবার কোল এভাবে যেন খালি না হয়।’ এ সময় শিক্ষামন্ত্রীও অনেকটা আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন। শিক্ষামন্ত্রী বলেন, দ্রুত বিচারের জন্য চার্জশিট হয়েছে। দ্রুত বিচার হবে বলেও তিনি আশ্বাস দেন। বিকাল ৪টার দিকে শিক্ষামন্ত্রী রাজনের বাড়িতে যান। প্রায় আধঘণ্টা রাজনের বাড়িতে অবস্থানের পর ফেরার পথে তার পিতা আজিজুর রহমানের হাতে ৫০ হাজার টাকা তুলে দেন। শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ এ সময় বলেন, শিশু সামিউল আলম রাজনের হত্যাকারীরা জগণ্য অমানুষ, মানবতাবিরোধী, সারা দেশে নারী ও শিশু নির্যাতনকারী বর্বর নরপশুদের বিরুদ্ধে কঠোর আইন প্রয়োগ করতে হবে।
মানুষের ভেতরের মনুষ্যত্বকে জাগ্রত করতে সামাজিক সচেতনামূলক গণ-আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। মা-বোন-শিশুদের সুরক্ষা দিতে সারা দেশে আইনের পাশাপাশি ব্যাপক প্রতিরোধ, সামাজিক আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। আর যাতে কোন ঘাতরা এ রকম ববর্বর অমানবিক, নিষ্ঠুর, জগণ্য নির্যাতন না করতে পারে সেজন্য দেশবাসীর প্রতি সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলার আহ্বান জানান শিক্ষামন্ত্রী। তিনি আরও বলেন, রাজন হত্যাকারীদের যথাযথভাবে বিচার করা হবে। কেউ শাস্তি থেকে রেহাই পাবে না। পাশাপাশি বন্দিবিনিময় চুক্তির মাধ্যমে রাজনের খুনি কামরুল ইসলামকে ফিরিয়ে আনার চেষ্টা চলছে। এ সময় তার সঙ্গে উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক ও জেলা জজ আদালতের পিপি মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, সিলেটের জেলা প্রশাসক জয়নাল আবেদীন, মেট্রোপলিটন পুলিশ কমিশনার কামরুল আহসান, সাবেক সংসদ সদস্য ও মহানগর জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শফিকুর রহমান চৌধুরী, যুক্তরাজ্য আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক আয়োরুজ্জামান চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক রফিক আলী সুজাত ও কেন্দ্রীয় যুবলীগ নেতা অ্যাডভোকেট আব্বাছ উদ্দিন।

তুনতুন হাসানএক্সক্লুসিভ
সিলেটে নির্মমভাবে নিহত শিশু রাজনের বাড়িতে গেলেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ। গতকাল বিকালে মন্ত্রী রাজনের বাড়িতে গেলে রাজনের পিতা আজিজুর রহমান তাকে জড়িয়ে ধরে কাঁদলেন। বললেন, ‘আমি এই নির্মমতার বিচার চাই। আর কোন মা-বাবার কোল এভাবে যেন খালি না হয়।’ এ সময় শিক্ষামন্ত্রীও অনেকটা আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন। শিক্ষামন্ত্রী বলেন,...