Brammoman
রাজধানীর কলাবাগান ও পান্থপথ এলাকায় দুটি ব্ল্যাড ব্যাংকে র্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান চালিয়েছে। আলিফ ও দি-ডায়াগনোসিস নামের দুটি প্রতিষ্ঠানের মালিককে ৮৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এ ছাড়া, ভেজাল রক্ত সংগ্রহ ও বাজারজাত করার সঙ্গে জড়িত তিনজকে আটক করা হয়। এরা হলেন—নুরুন্নাহার (৩৫), শফিকুল ইসলাম (৪৪) ও জাহাঙ্গীর (৩৫)।

র্যাব জানিয়েছে—সামপ্রতিক সময়ে কতিপয় অসাধু ব্ল্যাড ব্যাংকের অপতত্পরতা স্বাস্থ্যখাতকে অনিরাপদ করছে। নিরাপদ রক্ত পরিসঞ্চালন আইন অনুযায়ী ব্ল্যাড ব্যাংকগুলোতে রক্ত পরিসঞ্চালন বিশেষজ্ঞ, প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত চিকিত্সক, প্রযুক্তিবিদ, ল্যাব সহকারী ও প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম, রক্ত সংগ্রহ, সংরক্ষণ প্রনালী আধুনিক ও উন্নত থাকার বাধ্যবাধকতা রয়েছে। কিন্তু এ দুটি ব্ল্যাড ব্যাংক এ সব নিয়ম তো মানেইনি বরং অনিয়ম করেছে।

র্যাবের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট হেলাল উদ্দিন ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান—অত্যন্ত নোংরা ও অস্বাস্থ্যকর পরিবেশ, ব্যবহূত ব্ল্যাড ব্যাগের পূর্ণব্যবহার, ব্লাড ট্যান্সমিশন বিশেষজ্ঞ অনুপস্থিত, সার্বক্ষণিক মেডিক্যাল অফিসার অনুপস্থিত এবং সেবার মূল্য তালিকা না থাকায় নিরাপদ রক্ত সঞ্চালন আইন ২০০২ এর ২১(২) ২২(২) (ক) ২৭ ধারায় আলিফ ব্ল্যাড ব্যাংকে ২৫ হাজার টাকা এবং দি ডায়াগনোসিস ব্ল্যাড ব্যাংককে রক্ত সঞ্চালন আইন ২০০২-এর ২১(২) ২২(২) (ক) ২৭ ধারা ও ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণের ৮ধারা মোতাবেক ৮৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়।

তুনতুন হাসানঅন্যান্য
রাজধানীর কলাবাগান ও পান্থপথ এলাকায় দুটি ব্ল্যাড ব্যাংকে র্যাবের ভ্রাম্যমাণ আদালত অভিযান চালিয়েছে। আলিফ ও দি-ডায়াগনোসিস নামের দুটি প্রতিষ্ঠানের মালিককে ৮৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়। এ ছাড়া, ভেজাল রক্ত সংগ্রহ ও বাজারজাত করার সঙ্গে জড়িত তিনজকে আটক করা হয়। এরা হলেন—নুরুন্নাহার (৩৫), শফিকুল ইসলাম (৪৪) ও জাহাঙ্গীর...