89986_f3
বাসা থেকে তুলে নিয়ে এক গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গছে। ঘটনাটি ঘটেছে রাজধানীর সবুজবাগের দক্ষিণগাঁও নন্দীপাড়ের লিঙ্ক রোড এলাকায়। এ ঘটনায় সবুজবাগ থানায় গতকাল রাতে মামলা করেছেন নির্যাতিতা। নির্যাতিতাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করা হয়েছে। নির্যাতিতার স্বজনরা জানিয়েছেন, বুধবার রাত ১টার দিকে পালাক্রমে কয়েকজন তাকে ধর্ষণ করে। এ ঘটনা কাউকে জানালে প্রাণনাশের হুমকি দেয় দুর্বৃত্তরা। ধর্ষণের আগে মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে নন্দীপাড়ের লিঙ্ক রোড এলাকায় ওই নারীর বাসায় ঢুকে এক নারীসহ ১০ জন। এ সময় বাসায় ওই নারী ও তার স্বামী ছিলেন। দুর্বৃত্তরা বাসায় ঢুকে জানতে চায়, তারা সম্পর্কে স্বামী-স্ত্রী কি না? স্বামী-স্ত্রী পরিচয় দেয়ার পর কাবিননামা দেখতে চায় তারা। তখন বাসায় কাবিননামা না থাকায় তা দেখাতে পারেননি এই দম্পতি। এ সময় অবৈধভাবে বসবাস করছেন অভিযোগ করে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে দুর্বৃত্তরা। টাকা না দিলে নির্যাতন করে এলাকা ছাড়া করা হবে বলে হুমকি দেয় তারা। এ সময় ওই নারীর স্বামীকে আলাদা কক্ষে তালা দিয়ে রাখে তারা। ওই নারী অভিযোগ করেন, এ সময় তাকে টেনেহিঁচড়ে বাসার বাইরে নিয়ে যায় দুর্বৃত্তরা। বাসার পাশের বালুরমাঠ সংলগ্ন নির্মাণাধীন বিল্ডিংয়ের পেছনে একটি ঝুপড়ি ঘরে নিয়ে আটকে রাখে তাকে। রাত ১টার দিকে স্থানীয় মেহেদি নামক বখাটে ওই ঘরে প্রবেশ করে ধর্ষণ করে ওই নারীকে। পর্যায়ক্রমে ১২ জন ওই নারীকে ধর্ষণ করে বলে তিনি অভিযোগ করেন। ধর্ষণ শেষে বিষয়টি কাউকে জানালে প্রাণনাশের হুমকি দেয় দুর্বৃত্তরা। এ ঘটনায় নির্যাতিতা বাদী হয়ে ১০জনের নাম উল্লেখ করে সবুজবাগ থানায় মামলা করেছেন। মামলায় আসামি করা হয়েছে ওই এলাকার মেহেদি, মনির, লিটন, খোকন, বাপ্পি, মাসুম, এলাইচ মিটু, জাকের, জাকির ও জোছনা বেগমসহ অজ্ঞাত ২জনকে। আসামিদের বয়স ২২ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে।
জানা গেছে, ওই নারী ও তার স্বামী দীর্ঘদিন ওমানে ছিলেন। দেশে ফিরে চার মাস আগে বিয়ে করেন তারা। দুই মাস যাবৎ সবুজবাগের দক্ষিণ লিঙ্করোডের ওই বাড়িতে ভাড়া থাকছিলেন এই দম্পতি। তাদের গ্রামের বাড়ি শরিয়তপুরে। নির্যাতিতা জানিয়েছেন, ওই এলাকায় বসবাসের পর থেকেই স্থানীয় এই বখাটেরা তাকে অনুসরণ করতো। প্রবাসী জানার পরই চাঁদা আদায়ের পরিকল্পনা করে বখাটেরা। মূলত চাঁদা আদায়ের জন্যই বখাটেদের সঙ্গে জোছনা নামের ওই নারীও যোগ দেয়। তারা এলাকায় বিভিন্ন অপরাধমূলক কর্মকাণ্ডে জড়িত বলে ওই নারী অভিযোগ করেন। মামলা দায়েরের পর ওই নারীকে ঢামেক হাসপাতালের ওসিসিতে নিয়ে যায় পুলিশ। সবুজবাগ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মুন্সি লোকমান ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, রাতে মামলা হয়েছে। মামলা দায়েরের পর ওই নারীকে ওসিসিতে ভর্তি করা হয়েছে। মামলা করার পর আসামিদের গ্রেপ্তার করতে পুলিশ তৎপরতা চালাচ্ছে জানিয়ে সবুজবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রফিকুল ইসলাম ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, আসামিরা ওই এলাকায় অস্থায়ী বাসিন্দা। মামলার পর থেকে তাদের খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না।

নৃপেন পোদ্দারপ্রথম পাতা
বাসা থেকে তুলে নিয়ে এক গৃহবধূকে গণধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গছে। ঘটনাটি ঘটেছে রাজধানীর সবুজবাগের দক্ষিণগাঁও নন্দীপাড়ের লিঙ্ক রোড এলাকায়। এ ঘটনায় সবুজবাগ থানায় গতকাল রাতে মামলা করেছেন নির্যাতিতা। নির্যাতিতাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে ভর্তি করা হয়েছে। নির্যাতিতার স্বজনরা জানিয়েছেন, বুধবার রাত ১টার দিকে পালাক্রমে...