10_100769

বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ বলেছেন, যাদের লজ্জা আছে তারাই শ্রেষ্ঠ। লজ্জা এমন একটি জিনিস যা সবার থাকতে হয়। লজ্জার কারণে মানুষ অন্যায় কাজ থেকে বিরত থাকে। ভুল করতে গিয়েও সেখান থেকে লজ্জার ভয়ে ফিরে আসে। কিন্তু আমাদের দেশে মানুষের মাঝে লজ্জা কমে যাচ্ছে। বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র পরিচালিত বই পড়া কর্মসূচি ‘দেশভিত্তিক উৎকর্ষ কার্যক্রম’-এর উদ্বোধন উপলক্ষে গতকাল চট্টগ্রামে আয়োজিত অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। সকালে চট্টগ্রাম কলেজিয়েট স্কুল হলে স্কুলের প্রধান শিক্ষক মুহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে এ অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন বিকাশের নির্বাহী কর্মকর্তা কামাল কাদীর, চিফ এক্সটারনাল অ্যান্ড করপোরেট অ্যাফেয়ার্স অফিসার মেজর জেনারেল (অব.) শেখ মো. মনিরুল ইসলাম, মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক অধিদফতরের উপপরিচালক আজিজ উদ্দিন, সিটি কলেজের অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক আলেক্স আলীম। সভা শেষে প্রধান অতিথি স্কুল কর্তৃপক্ষ ও শিক্ষার্থীদের কাছে বই তুলে দেন। অনুষ্ঠানে অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ আরও বলেন, দেশে আলোকিত মানুষের সংখ্যা প্রতিদিন, প্রতি বছর বাড়ছে। বাংলাদেশ তাদের আলোয় আলোকিত হচ্ছে, হবে। দেশের এ অগ্রগতিকে কেউ দমিয়ে রাখতে পারবে না। প্রত্যেক ঘরে আলোকিত মানুষ সৃষ্টি করতে হবে। পাঠ্যবইয়ের পাশাপাশি অন্য বইগুলোও পড়তে হবে। বই পড়ার মাধ্যমে মানুষের মন সুন্দর হয়। শৈশব থেকে বই পড়ার অভ্যাস করলে সুন্দর পরিবেশ সৃষ্টি হয়। সবাই সুন্দর পরিবেশে বেড়ে উঠলে বাংলাদেশও সুন্দর হবে।

ওয়াজ কুরুনীমতামত
বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা অধ্যাপক আবদুল্লাহ আবু সায়ীদ বলেছেন, যাদের লজ্জা আছে তারাই শ্রেষ্ঠ। লজ্জা এমন একটি জিনিস যা সবার থাকতে হয়। লজ্জার কারণে মানুষ অন্যায় কাজ থেকে বিরত থাকে। ভুল করতে গিয়েও সেখান থেকে লজ্জার ভয়ে ফিরে আসে। কিন্তু আমাদের দেশে মানুষের মাঝে লজ্জা কমে যাচ্ছে। বিশ্বসাহিত্য কেন্দ্র পরিচালিত...