1440336005
যশোর-মাগুরা সড়কের তেলিধান্যপুড়া থেকে পুলিশ জাতীয় সংসদ সদস্যের স্টিকারযুক্ত প্রাইভেট কার থেকে সাড়ে ৭শ’ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করেছে। আটক করা হয়েছে গাড়ির মালিক ফিরোজ আলমকে। তিনি লক্ষীপুর জেলার দালানবাজার গ্রামের নূরু মিয়ার ছেলে। প্রাইভেট কারটি জব্দ করা হয়েছে। আটক ফিরোজ আলশ বাড়ি লহ্মীপুরের দালালবাজারের নূরু মিয়ার ছেলে।

খাজুরা পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই মাসুদুর রহমান ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, সীমান্ত এলাকা থেকে ফেনসিডিল বোঝাই একটি প্রাইভেট কার ঢাকার দিকে যাচ্ছে। এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে রবিবার বিকাল সাড়ে ৪টার দিকে পুলিশ খাজুরা ফিলিং স্টেশনের কাছে তেলিধান্যপুড়া এলাকায় ব্যারিকেড দেয়। ব্যারিকেড ভেঙে পালিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করলে পুলিশ ধাওয়া করে কারটি আটক করে। গাড়ির সামনে ‘বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ, সংসদ সদস্য’ লেখা স্টিকার লাগানো ছিল। ড্রাইভিং সিটের পাশে পাওয়া যায় ‘ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশ’ লেখা স্টিকার।

এসআই মাসুদ বলেন, ‘যখন যেটা প্রয়োজন তখন সেই স্টিকার ব্যবহারের জন্য স্টিকার গাড়িতে রেখেছিল। ফেনসিডিল চোরাচালানই তার পেশা। প্রাইভেট কার ও ফেনসিডিলসহ তাকে বাঘারপাড়া থানায় সোপর্দ এবং মামলা করা হয়েছে।’

বাহাদুর বেপারীপ্রথম পাতা
যশোর-মাগুরা সড়কের তেলিধান্যপুড়া থেকে পুলিশ জাতীয় সংসদ সদস্যের স্টিকারযুক্ত প্রাইভেট কার থেকে সাড়ে ৭শ’ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করেছে। আটক করা হয়েছে গাড়ির মালিক ফিরোজ আলমকে। তিনি লক্ষীপুর জেলার দালানবাজার গ্রামের নূরু মিয়ার ছেলে। প্রাইভেট কারটি জব্দ করা হয়েছে। আটক ফিরোজ আলশ বাড়ি লহ্মীপুরের দালালবাজারের নূরু মিয়ার ছেলে। ...