1439820588
সাভারের আশুলিয়ায় নিশ্চিতপুর এলাকায় বেসরকারি একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন। ধর্ষণ শেষে টাকা ও মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয় ধর্ষণকারীরা।

রবিবার ওই ছাত্রী বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় মামলা করেছে।

পুলিশ এ ঘটনায় অভিযুক্ত চারজনকে গ্রেফতার করেছে। উদ্ধার করেছে ওই ছাত্রীর কাছ থেকে ছিনিয়ে নেয়া মোবাইল ফোন ও টাকা। আটকরা হলেন, আশুলিয়া থানার পাড়াগ্রাম এলাকার মো. আকলব বেপারী (২৭), একই এলাকার রিয়াদ দেওয়ান (২২), নিশ্চিতপুর এলাকার আনোয়ার হোসেন (২৪), ও সাধুপাড়া এলাকার রাকিব ওরফে বাদল (২৭)। রিমান্ডের আবেদন জানিয়ে তাদের আদালতে পাঠানো হবে।

ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে পুলিশ জানায়, মোবাইল ফোনে রাকিবের সঙ্গে ওই মেয়ের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। শনিবার বিকেলে ওই ছাত্রীকে মোবাইল ফোনে মিরপুর বেড়িবাধ তামান্না গার্ডেনে আসতে বলে রাকিব। প্রেমের টানে ওই ছাত্রী সেখানে আসলে বন্ধুর বাসায় বেড়ানোর কথা বলে আশুলিয়ার নিশ্চিন্তপুরে পরিত্যক্ত একটি টিনসেড বাড়িতে রাকিব তাকে নিয়ে যায়। ওই বাড়িতে আসামিরা রাত ১০টা থেকে পরদিন রবিবার ভোর চারটা পর্যন্ত তাকে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে ওই ছাত্রী অসুস্থ হয়ে পড়লে আসামিরা তার কাছে থাকা নগদ ২৫ হাজার টাকা ও মোবাইল সেট নিয়ে পালিয়ে যায়।

পুলিশ আরো জানায়, ডাক্তারি পরীক্ষার জন্য ওই মেয়েকে ঢাকা মেডিক্যাল হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে পাঠানো হয়েছে।

সুরুজ বাঙালীপ্রথম পাতা
সাভারের আশুলিয়ায় নিশ্চিতপুর এলাকায় বেসরকারি একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন। ধর্ষণ শেষে টাকা ও মোবাইল ফোন ছিনিয়ে নেয় ধর্ষণকারীরা। রবিবার ওই ছাত্রী বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় মামলা করেছে। পুলিশ এ ঘটনায় অভিযুক্ত চারজনকে গ্রেফতার করেছে। উদ্ধার করেছে ওই ছাত্রীর কাছ থেকে ছিনিয়ে নেয়া মোবাইল ফোন ও টাকা।...