1442770219
বাসের টিকিট যুদ্ধ শেষ হতে হতেই স্বজনের সঙ্গে ঈদ উদযাপনের লক্ষ্যে ঢাকা ছাড়তে শুরু করেছে মানুষ। কিন্তু হঠাত্ বৃষ্টিতে মহাসড়কে তাদের পোহাতে হচ্ছে মহাযন্ত্রণা। ঢাকা-টাঙ্গাইল ও ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার মেঘনা গোমতী সেতুর টোলপ্লাজা থেকে বিশ্বরোড পর্যন্ত দেড় কিলোমিটার দীর্ঘ যানজটে ভয়াবহ অবস্থার তৈরি হয়েছে। এ দিকে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া ফেরিঘাটে পন্টুনের বেজের মাটি ৫০ ফুট নদীগর্ভে চলে যাওয়ায় ২ নম্বর ঘাটে সাময়িকভাবে ফেরি চলাচল বন্ধ রয়েছে। তবে হঠাত্ করে মহাসড়কে যানজটের কারণ হিসেবে সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছে, নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও সম্প্রতি আবার মহাসড়কে বেশ কিছু এলাকায় নচিমন, করিমন, ভটভটি চলাচল শুরু হয়েছে। পাশাপাশি রয়েছে গরুবাহী ট্রাকের চাপ ও সড়কের পাশে অবৈধ গরুর হাট।

হাইওয়ে পুলিশের ডিআইজি মল্লিক ফকরুল ইসলাম ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের প্রধান সমস্যা কালিয়াকৈর ব্রিজ। তাছাড়া মহাসড়কের বেশ কয়েকটি এলাকায় গরু ভর্তি ট্রাক বিকল হয়ে যাওয়ায় যানজটের সৃষ্টি হয়। পরে এই ট্রাকগুলো সরিয়ে ফেলা হলেও যানজট রয়ে গেছে। তারপরও বৃষ্টি পরিস্থিতি জটিল করেছে। তাছাড়া ঈদের দিন যতই ঘনিয়ে আসছে মহাসড়কে গাড়ির সংখ্যা প্রতিদিন বাড়ছে।

ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কে ৩০ কিলোমিটার যানজট

মির্জাপুর প্রতিনিধি জানান, ঢাকা-টাঙ্গাইল মহাসড়কের কালয়াকৈরের চন্দ্রা থেকে টাঙ্গাইলের মির্জাপুর পর্যন্ত প্রায় তিরিশ কিলোমিটার এলাকা জুড়ে যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। এতে করে চরম ভোগান্তিতে পড়েছে যাত্রীরা। ঢাকা থেকে টাঙ্গাইল আসতে দুই থেকে তিন ঘন্টার স্থলে এখন সময় লাগছে প্রায় চার থেকে পাঁচ ঘন্টা। মহাসড়কে যানবাহনের ব্যাপক চাপ থাকার কারণে এ যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। ঈদ উপলক্ষে গরু ভর্তি ট্রাক যাতায়াতের যানজটের সৃষ্টি হয়েছে বলে ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানিয়েছে পুলিশ।

গোড়াই হাইওয়ে থানার ওসি মোঃ হুমায়ূন কবীর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে এ রোডে যানবাহনের চাপ ব্যাপক বেড়ে গেছে। বিশেষ করে উত্তরাঞ্চল থেকে কোরবানির পশুবাহী ট্রাক ঢাকার দিকে চলাচল করায় এবং চন্দ্রা থেকে মির্জাপুর উপজেলার জামুর্কি পর্যন্ত মহাসড়কের বিভিন্ন অংশে খানাখন্দ সৃষ্টি হয়ে যান চলাচল অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ হয়ে পড়েছে।

এ ব্যাপারে টাঙ্গাইল জেলা প্রশাসক মোঃ মাহবুব হোসেন ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, যানজট নিরসনের জন্য সড়ক ও জনপথ বিভাগের পক্ষ থেকে ভাঙ্গাচোরা রাস্তা মেরামত করা হচ্ছে। চন্দ্রা থেকে বঙ্গবন্ধু সেতুর পূর্বপ্রান্ত পর্যন্ত বিভিন্ন পয়েন্টে ৫শতাধিক পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে এবং নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট তদারকি করছেন। এছাড়া র্যাব, পুলিশ, আনসার, এপিবিএন ও কমিউনিটি পুলিশও যানজট নিরসনে দিনরাত পরিশ্রম করছেন। ঈদের পরেও তাদের এ কার্যক্রম চলবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

কুমিল্লা প্রতিনিধি জানান, ঢাকা- চট্টগ্রাম মহাসড়কের কুমিল্লার দাউদকান্দির গোমতী সেতুর টোলপ্লাজা এলাকা থেকে বিশ্বরোড পর্যন্ত প্রায় দুই কিলোমিটার এলাকার পিচ উঠে গেছে। আর বৃষ্টির কারণে পরিস্থিতি আরো জটিল হয়েছে। এ অবস্থায় গতকাল সকাল থেকেই দেখা দেয় তীব্র যানজট।

হাইওয়ে পুলিশ সুপার রেজাউল করিম ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, মহাসড়কের কয়েকটি পয়েন্টে গর্তের কারণে যানজট দেখা দিয়েছিল। পরে তা ঠিক হয়ে গেছে। মহাসড়কের পাশে গরুর হাট বসানোর ব্যাপারে তিনি বলেন, কুমিল্লার চান্দিনা এলাকায় মহাসড়কের পাশে একটি গরুর হাট বসার চেষ্টা করা হয়েছিল। পুলিশ তা তুলে দিয়েছে। অপর এক প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, মহাসড়কে কোন স্থানেই স্বল্প গতি সম্পন্ন যানবাহন চলতে দেয়া হচ্ছে না।

দাউদকান্দি মডেল থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মোহাম্মদ আবু ছালাম মিয়া ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, মহাসড়কের কয়েকটি স্থানে পিচ উঠে যাওয়ায় যানবাহন ঝুকি নিয়ে চলাচল করছে। এ কারণে যানবাহনের গতি কমে যাওয়ায় যানজটের সৃষ্টি হয়েছে। তিনি আশা করেন ঈদের আগেই এ সমস্যার সমাধান হবে।

দৌলতদিয়ায় একটি ফেরিঘাট নদীগর্ভে

দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া ফেরিঘাটে পন্টুনের বেজের মাটি ৫০ ফুট নদীগর্ভে চলে যাওয়ায় ২ নম্বর ফেরিঘাটে সাময়িকভাবে ফেরি চলাচল বন্ধ রয়েছে। ২ নম্বর ফেরিঘাটের পন্টুন ১ নম্বর ফেরিঘাটের কাছে স্থানান্তর করা হয়েছে। ফেরি স্বল্পতার কারণে দৌলতদিয়া ঘাট প্রান্তে ছিল যানবাহন পারাপারে কিছুটা বাড়তি চাপ। গতকাল সকাল ৮টার দিকে ২ নম্বর ফেরিঘাট বন্ধ করে দেয় কর্তৃপক্ষ। পরে দুপুর দেড়টার দিকে পন্টুন স্থানান্তর করা হয়।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিসি) দৌলতদিয়াঘাট ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) সফিকুল ইসলাম ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, ২ নম্বর ফেরিঘাটে সংস্কারের কাজ চলছে। সোমবার দুপুরের মধ্যে কাজ শেষ হতে পারে। কাজ শেষ হলে পন্টুন আবার ২ নম্বর ফেরিঘাটে স্থাপন করা হবে। ঈদকে সামনে রেখে ঘাটে পশুবাহী ট্রাক পারাপারে অগ্রাধিকার দেয়া হচ্ছে। গত ১৮ সেপ্টেম্বর দৌলতদিয়া ২ নম্বর ফেরিঘাট পরিদর্শন করেন নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান। এ সময় তিনি ঘাট কর্তৃপক্ষকে জরুরি ভিত্তিতে ঘাট সংস্কারের নির্দেশ দিয়েছেন।

শুভ সমরাটজাতীয়
বাসের টিকিট যুদ্ধ শেষ হতে হতেই স্বজনের সঙ্গে ঈদ উদযাপনের লক্ষ্যে ঢাকা ছাড়তে শুরু করেছে মানুষ। কিন্তু হঠাত্ বৃষ্টিতে মহাসড়কে তাদের পোহাতে হচ্ছে মহাযন্ত্রণা। ঢাকা-টাঙ্গাইল ও ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার মেঘনা গোমতী সেতুর টোলপ্লাজা থেকে বিশ্বরোড পর্যন্ত দেড় কিলোমিটার দীর্ঘ যানজটে ভয়াবহ অবস্থার তৈরি হয়েছে। এ দিকে দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া...