DHASON
দুই নেপালি গৃহকর্মীকে ধর্ষণে অভিযুক্ত সৌদি কূটনীতিক ভারত ছেড়েছেন। কূটনৈতিক সুরক্ষার আওতায় তিনি ভারত ছেড়েছেন বলে জানিয়েছে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। খবর বিবিসির।

এদিকে, ভারতের সৌদি দূতাবাস ওই ধর্ষণের অভিযোগ পুরোপুরি অস্বীকার করেছে এবং কর্মকর্তাটির কূটনৈতিক সুরক্ষা বাতিলের অনুরোধও প্রত্যাখ্যান করেছে। তবে অভিযুক্ত কর্মকর্তা ভারত ছেড়ে চলে যাওয়ার ফলে কূটনৈতিক দুইটি দেশই টানাপোড়েন থেকে রক্ষা পেল।

ওই কূটনীতিকের বিরুদ্ধে অভিযোগ, গুরগাঁওয়ের ফ্ল্যাটে দুজন নেপালি নারী গৃহকর্মীকে টানা কয়েক মাস ধরে আটকে রেখে তিনি লাগাতার ধর্ষণ করেছেন। স্থানীয় একটি এনজিওর কাছ থেকে পাওয়া অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ ওই ফ্ল্যাটে অভিযান চালিয়ে আটক দুই নেপালি নারীকে উদ্ধার করে।

উদ্ধার হওয়া ৫০ ও ২০ বছর বয়সী দুই নেপালি নারী পুলিশকে জানান—প্রায় চার মাস ধরে তাদের ওই ফ্ল্যাটে আটকে রাখা হয়েছিল। এ সময়ের মধ্যে ওই কূটনীতিক ছাড়া আরো অনেকেই তাদের ধর্ষণ করে। এ ছাড়া, তাদের নিয়মিত মারধর করা হয় এবং খেতেও দেওয়া হয়নি।

প্রসঙ্গত, নেপাল থেকে প্রতিবছর হাজার হাজার নারী গৃহপরিচারিকা হিসেবে কাজের জন্য ভারতে বা মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলোতে পাড়ি জমান। ওই দুই নেপালি নারী গত এপ্রিলে নেপালে ভূমিকম্পের পর কাজের সন্ধানে মধ্যপ্রাচ্যে গিয়েছিলেন বলে জানা গেছে। সৌদি আরবের জেদ্দায় দুই সপ্তাহ থাকার পর তারা সৌদি কূটনীতিকের সঙ্গে ভারতে চলে আসেন।

বাহাদুর বেপারীআন্তর্জাতিক
দুই নেপালি গৃহকর্মীকে ধর্ষণে অভিযুক্ত সৌদি কূটনীতিক ভারত ছেড়েছেন। কূটনৈতিক সুরক্ষার আওতায় তিনি ভারত ছেড়েছেন বলে জানিয়েছে দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। খবর বিবিসির। এদিকে, ভারতের সৌদি দূতাবাস ওই ধর্ষণের অভিযোগ পুরোপুরি অস্বীকার করেছে এবং কর্মকর্তাটির কূটনৈতিক সুরক্ষা বাতিলের অনুরোধও প্রত্যাখ্যান করেছে। তবে অভিযুক্ত কর্মকর্তা ভারত ছেড়ে চলে যাওয়ার ফলে কূটনৈতিক...