আন্তর্জাতিক ডেস্ক ।
ভারতে প্রচলিত লৈঙ্গিক ধ্যান-ধারণা থেকে বের হয়ে আসা প্রথম মহিলা নাপিত হলেন শান্তাবাই যাদব। স্বামীর মৃত্যুর পর বাচ্চাদের ভরণপোষণের জন্য তিনি অনেক সংগ্রাম করেছেন। আর তখনই মহারাষ্ট্রে তিনি কাজটি নেন। খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।
এটি সাধারণত পুরুষরা করে থাকে। তিনি জানান, ৪০ বছর আগে তার স্বামী মারা যান। তারপর থেকে তিনি এই কাজ শুরু করেন। চারটি মেয়েকে বড় করতে অনেক সংগ্রাম করতে হয়েছে জানিয়ে তিনি আরো বলেন, ‘কোনো উপায় না পেয়ে আমাকে আমাদের এই আদি পেশাকে বেচে নিতে হয়েছে। যদিও সমাজ তার এই পেশাকে কীভাবে দেখে এটা নিয়েই বেশি চিন্তিত ছিলেন তিনি।
কিন্তু দেখা গেলো, সবার সহযোগিতা ও সমর্থন পেয়ে বাড়তে লাগলো তার আয়। স্থানীয় শিক্ষকরা জানান, আমরা এই নারীর ছবি আমাদের স্কুলের দেয়ালেও টাঙিয়ে রেখেছি। কারণ দরিদ্রতা দূর করতে তার গল্প অনেকের কাছেই অনুপ্রেরণার বিষয়। জানা গেছে, চুল কেটে ৩০ রুপি এবং শেভ করিয়ে ২০ রুপি নেন শান্তাবাই। যদিও এতে খুব বেশি অর্থ আসেনা তারপরও একটা আয়ের পথ পেয়ে খুবই খুশি বলে জানান তিনি।
খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের। সূত্র : বিবিসি।

http://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2018/01/1030.jpghttp://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2018/01/1030-300x300.jpgজান্নাতুল ফেরদৌস মেহরিনআন্তর্জাতিক
আন্তর্জাতিক ডেস্ক । ভারতে প্রচলিত লৈঙ্গিক ধ্যান-ধারণা থেকে বের হয়ে আসা প্রথম মহিলা নাপিত হলেন শান্তাবাই যাদব। স্বামীর মৃত্যুর পর বাচ্চাদের ভরণপোষণের জন্য তিনি অনেক সংগ্রাম করেছেন। আর তখনই মহারাষ্ট্রে তিনি কাজটি নেন। খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের। এটি সাধারণত পুরুষরা করে থাকে। তিনি জানান, ৪০ বছর আগে তার...