DHARSON-1
ময়মনসিংহের নকলা উপজেলায় এক যুবকের বিরুদ্ধে এক কলেজ ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রতারক যুবক সামায়ুন কবীর উপজেলার চরকামানিয়াপাড়া গ্রামের বাসিন্দা।

জানা গেছে, উপজেলার ভাইটকান্দি টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিজনেস ম্যানেজম্যান্ট কলেজের এইচএসসি ২য় বর্ষের ওই ছাত্রীকে চরকামানিয়াপাড়া গ্রামের সামায়ুন কবীর গত এক মাস ধরে কলেজে যাবার সময় বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন। সোমবার বিকেলে বাড়ি ফেরার পথে ওই ছাত্রীকে ভাইটকান্দি বকুলের মোড় থেকে জোর করে মোটরসাইকেলে উঠিয়ে সামায়ুন হালুয়াঘাট উপজেলার আমতৈল গ্রামে ই্য়াসিনের বাড়িতে নিয়ে যায়। সেখানে ওই ছাত্রীর ইচ্ছার বিরুদ্ধে একাধিকবার ধর্ষণের কথা উপস্থিত সাংবাদিকদের কাছে সামায়ুন স্বীকার করে। এ সময়ে ধর্ষককে পালিয়ে যেতে সহায়তা করে আমতৈল গ্রামের সাবেক মেম্বার ওহিদুল ইসলাম।
এ ঘটনায় মেয়ের পিতা মুর্শেদ আলী সোমবার নকলা থানায় একটি জিডি করেন। মঙ্গলবার সকালে পুলিশ মেয়েকে উদ্ধার করে নিয়ে যায়।

তদন্তকর্মকর্তা এসআই হাফিজ ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

ওয়াজ কুরুনীঅন্যান্য
ময়মনসিংহের নকলা উপজেলায় এক যুবকের বিরুদ্ধে এক কলেজ ছাত্রীকে বিয়ের প্রলোভনে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। প্রতারক যুবক সামায়ুন কবীর উপজেলার চরকামানিয়াপাড়া গ্রামের বাসিন্দা। জানা গেছে, উপজেলার ভাইটকান্দি টেকনিক্যাল অ্যান্ড বিজনেস ম্যানেজম্যান্ট কলেজের এইচএসসি ২য় বর্ষের ওই ছাত্রীকে চরকামানিয়াপাড়া গ্রামের সামায়ুন কবীর গত এক মাস ধরে কলেজে যাবার...