নিজস্ব প্রতিবেদক ।
কোটা পদ্ধতি সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনরত ছাত্রীদের ওপর নির্যাতন ও এক ছাত্রীর পায়ে আঘাত করার অভিযোগে বহিষ্কৃত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কবি সুফিয়া কামাল হল ছাত্রলীগের সভাপতি ইফফাত জাহান এশা বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীদের হাতে লাঞ্ছিত হয়েছে।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।
মধ্যরাতেই তাকে ছাত্রীরা লাঞ্ছিত করে। এসময় কান্নারত এশা ক্ষমা প্রার্থনা করলেও তাকে ছাড় দেয়নি বিক্ষুব্ধরা।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, এশা ঝিনাইদহ সরকারি বালিকা বিদ্যালয় থেকে ২০১০ সালে মানবিক বিভাগ থেকে এসএসসি ও ২০১২ সালে ঝিনাইদহ সরকারি নুরুন্নাহার মহিলা কলেজ থেকে মানবিক বিভাগ নিয়ে এইচএসসি পাস করেন। এরপর ২০১২-২০১৩ শিক্ষাবর্ষে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে দর্শন বিভাগে ভর্তি হন। বর্তমানে তিনি মাস্টার্সের শিক্ষার্থী।

গতরাতে এক শিক্ষার্থীকে মারধর করে রক্তাক্ত করে এশা। সুফিয়া কামাল হলের শিক্ষার্থীদের সোশ্যাল হ্যান্ডেল থেকে জানানো হচ্ছিল এক ছাত্রীকে আটকে রেখে মারধর করা হচ্ছে। মেঝেতে রক্তের দাগ পাওয়া গেছে। এরপর শত শত ছাত্র মধ্যরাতেই সুফিয়া কামাল হলের সামনে অবস্থান নেয়।

পরে ছাত্রীরা হলের ভেতর এক হয়ে ইফফাত জাহান এশাকে লাঞ্ছিত করে। এসময় তার কান্নাও কাউকে নমনীয় করতে পারেনি। কেননা তিনি বরাবরই শিক্ষার্থীদের নানাভাবে নির্যাতন করে আসছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে।

এশাকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্তের বিষয় নিশ্চিত করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর অধ্যাপক গোলাম রব্বানী। এর আগে তিনি এশাকে হল থেকে বহিষ্কারের আদেশ দেন।

একইসঙ্গে তাকে সুফিয়া কামাল হলের সভাপতি পদ থেকে বহিষ্কার করে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগ। মঙ্গলবার দিবাগত রাতে ছাত্রলীগ সভাপতি সাইফুর রহমান সোহাগ ও সাধারণ সম্পাদক এস এম জাকির হোসেন স্বাক্ষরিত এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানানো হয়।
খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

http://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2018/04/77.jpghttp://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2018/04/77-300x254.jpgজান্নাতুল ফেরদৌস মেহরিনশেষের পাতা
নিজস্ব প্রতিবেদক । কোটা পদ্ধতি সংস্কারের দাবিতে আন্দোলনরত ছাত্রীদের ওপর নির্যাতন ও এক ছাত্রীর পায়ে আঘাত করার অভিযোগে বহিষ্কৃত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কবি সুফিয়া কামাল হল ছাত্রলীগের সভাপতি ইফফাত জাহান এশা বিক্ষুব্ধ শিক্ষার্থীদের হাতে লাঞ্ছিত হয়েছে।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের। মধ্যরাতেই তাকে ছাত্রীরা লাঞ্ছিত করে। এসময় কান্নারত এশা ক্ষমা প্রার্থনা...