1439979534
বাগেরহাটে এক ভ্যান চালক জাকারিয়া বেহারাকে হত্যা ও লাশ গুম করার চেষ্টার অভিযোগে চার জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত। বুধবার দুপুরে জেলা দায়রা জজ আদালতের বিচারক মিজানুর রহমান খান এ আদেশ দেন। একই সাথে আদালত তাদের প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরো এক বছরের সশ্রম কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছে।

দণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন- বাগেরহাটের রামপাল উপজেলার কাষ্ঠবাড়িয়া গ্রামের এনামুল মোল্লা (২০), আল আমিন শেখ (২১), জাহিদ গাজী (২৩) এবং একই উপজেলার খাজুরা গ্রামের এখলাস ওরফে আসাদুল কবির (২৩)। এদের মধ্যে আল আমিন শেখ পলাতক রয়েছেন।

মামলার সংক্ষিপ্ত বিবরণে জানা যায়, ২০০৯ সালের ১৪ ফেব্রুয়ারি ভ্যানরিক্সা নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে জাকারিয়া বেহারা আর বাড়ি ফেরেননি। পরদিন ১৫ ফেব্রুয়ারি ফকিরহাট উপজেলার পিলজংগ গ্রামের পশ্চিমপাড়ার একটি খেজুর বাগান থেকে স্থানীয়রা জাকারিয়ার লাশ উদ্ধার করে। এই ঘটনায় ঐ দিন নিহতের মা শরীফা বেগম বাদী হয়ে ফকিরহাট থানায় অজ্ঞাত আসামিদের বিরুদ্ধে হত্যা মামলা দায়ের করেন। এই ঘটনায় ফকিরহাট থানার উপ-পরিদর্শক ইশারাত হোসেন ২০০৯ সালের ১৩ আগস্ট আওয়াল শেখসহ ছয়জনের বিরুদ্ধে আদালতে অভিযোগপত্র জমা দেন। মামলা চলাকালীন সময়ে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে বেলাল শেখ নামে এই মামলার এক আসামি নিহত হন। বাগেরহাট কারাগারে আটক অবস্থায় গত ৯ আগস্ট আওয়াল শেখ অসুস্থ হয়ে মারা যান। আদালত মৃত ঐ দুইজনকে বিচার প্রক্রিয়া থেকে বাদ দিয়ে এই রায় ঘোষণা করেন।

হাসন রাজাআইন-আদালত
বাগেরহাটে এক ভ্যান চালক জাকারিয়া বেহারাকে হত্যা ও লাশ গুম করার চেষ্টার অভিযোগে চার জনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছে আদালত। বুধবার দুপুরে জেলা দায়রা জজ আদালতের বিচারক মিজানুর রহমান খান এ আদেশ দেন। একই সাথে আদালত তাদের প্রত্যেককে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা অনাদায়ে আরো এক বছরের সশ্রম...