বিশেষ প্রতিবেদক ।
বাংলাদেশ-ভারতের সম্পর্ক আরো সুদৃঢ় করতে যাত্রীবাহী ননস্টপ মৈত্রী এক্সপ্রেসের পর এবার চালু হলো পণ্য আদান-প্রদানের কন্টেইনারবাহী ট্রেন। এর মাধ্যমে উভয় দেশের পণ্য পরিবহনে ইতিবাচক পরিবর্তন আসবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

আজ মঙ্গলবার ছিল এই রেলের পরীক্ষামূলক যাত্রা। এটাই হবে আগামী দিনে দু’দেশের নিত্যপণ্য আদান-প্রদানের প্রধান মাধ্যম।

এ সময় সেখানে উপস্থিত থেকে ভারতীয় পূর্ব রেলের জি এম হরিন্দ্র রাও, কনকরের সিএমডি কল্যাণ রামা ও মানসী ব্যানার্জী আনুষ্ঠানিকভাবে এই রেল যাত্রার ফ্ল্যাগ অফ করেন।

ভারতের পূর্বাঞ্চলীয় রেলের প্রধান জনসংযোগ কর্মকর্তা রবি মহাপাত্র সাংবাদিকদের জানান, পরীক্ষামূলক এই রেলযাত্রায় ভারতের পক্ষ থেকে উপহার হিসেবে এসব গাড়ি সংযুক্ত করা হয়েছে। সব কিছু ঠিক থাকলে নিয়মিত এই ট্রেন চলবে।

এই ট্রেনের পরীক্ষামূলক প্রথম যাত্রায় ৩০টি রেকে মোট ৬০টি কনটেইনার রয়েছে। এর মধ্যে ৩০টিতে ভারত সরকারের পক্ষ থেকে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর জন্য ৩০টি জিপ গাড়ি উপহার হিসেবে পাঠানো হয়েছে। ৯ ঘণ্টার যাত্রা শেষে ট্রেনটি সন্ধ্যায় বাংলাদেশে এসে পৌঁছাবে।

এত দিন দুই দেশের মধ্যে গেদে-দর্শনা ও বেনাপোল-পেট্রাপোল সীমান্ত ব্যবহার করে যাত্রীবাহী ও মালবাহী ট্রেন যাতায়াত করলেও কনটেইনারে পণ্য পরিবহন হতো না। ফলে বাংলাদেশ-ভারতের সম্পর্কের শরীরে নতুন আরেকটি পালক যুক্ত হল।
খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

http://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2018/04/13.jpghttp://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2018/04/13-300x300.jpgবাহাদুর বেপারীজাতীয়
বিশেষ প্রতিবেদক । বাংলাদেশ-ভারতের সম্পর্ক আরো সুদৃঢ় করতে যাত্রীবাহী ননস্টপ মৈত্রী এক্সপ্রেসের পর এবার চালু হলো পণ্য আদান-প্রদানের কন্টেইনারবাহী ট্রেন। এর মাধ্যমে উভয় দেশের পণ্য পরিবহনে ইতিবাচক পরিবর্তন আসবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের। আজ মঙ্গলবার ছিল এই রেলের পরীক্ষামূলক যাত্রা। এটাই হবে আগামী দিনে দু’দেশের নিত্যপণ্য...