1440877031
ট্রেনের লাইন তৈরি হয় লোহার পাত দিয়ে। মূলত ট্রেনের গঠনকাঠামো অনুসরণ করেই লাইন এত শক্ত পদার্থ দিয়ে তৈরি হয়। কিন্তু ভিন্ন চিত্র কম্বোডিয়ায়। সেখানে একটি ট্রেন সার্ভিস চালু হয়েছে। তা হলো বাঁশের ট্রেন। ইংরেজিতে যাকে বলে ব্যাম্বু ট্রেন সার্ভিস। সম্প্রতি এর একটি ভিডিও ইউটিউবে পোস্ট করা হয়েছে। স্থানীয় ভাষায় বলা হয় ‘নরি’। নাম এবং কাজের জন্য এই ট্রেন বেশ বিখ্যাত। অনেকে এই রেল সার্ভিসকে ‘রেল ট্যাক্সি’ বলেও আখ্যায়িত করেছেন। বাঁশের ট্রেনের মিটার গেজ ট্র্যাকটি তৈরি হয়েছে ফ্রান্স কলোনির সময়। পরবর্তী সময়ে খেমাররুজ শাসনামলে এই ট্র্যাকগুলো বন্ধ করে দেয়া হয়। বিভিন্ন স্থানে লাইনচ্যুত হয়েছে। ভেঙেও পড়েছে রেল সড়ক। যে কারণে শিডিউল রেল সার্ভিস এ পথে নেই। এ অবস্থায় বাসিন্দারা বাটামবাং থেকে পোপাইট পর্যন্ত প্রায় ৫০ কিমি রেল ট্র্যাক এই সার্ভিসে ব্যবহার হয়।

এই ট্রেনের প্রথম স্ট্রাকচার তৈরি হয় দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের বাতিল ট্যাঙ্কের হুইল থেকে। পরবর্তী সময়ে এগুলো তৈরি হয় লোকাল ওয়ার্কশপে। এর পাটাতন তৈরি হয় বাঁশ থেকে। আর এর পূর্ণাঙ্গ স্ট্রাকচারকেই বলা হয় নরি। এসব নরিতে ব্যবহার হয় ৬ হর্স পাওয়ার মোটর ইঞ্জিন। ছোট সাইজের চার চাকার ওপর এটি চলে। এর যে কোনো একটি চাকার সঙ্গে ইঞ্জিনের ফিতা জুড়ে দিলেই তা চলার উপযোগী হয়। এক মিটার গেজের ট্র্যাকে চলাচল করা এই ট্রেনে কোনো ব্রেক নেই। যখন দুই ট্রেন মুখোমুখি হবার উপক্রম হয় তখন দুই চালকই এর ইঞ্জিন বন্ধ করে দেন। পরে যে কোনো একটিকে ট্র্যাক থেকে সরিয়ে অন্যটিকে যাওয়ার পথ করে দিতে হয়।

সুরুজ বাঙালীঅন্যান্য
ট্রেনের লাইন তৈরি হয় লোহার পাত দিয়ে। মূলত ট্রেনের গঠনকাঠামো অনুসরণ করেই লাইন এত শক্ত পদার্থ দিয়ে তৈরি হয়। কিন্তু ভিন্ন চিত্র কম্বোডিয়ায়। সেখানে একটি ট্রেন সার্ভিস চালু হয়েছে। তা হলো বাঁশের ট্রেন। ইংরেজিতে যাকে বলে ব্যাম্বু ট্রেন সার্ভিস। সম্প্রতি এর একটি ভিডিও ইউটিউবে পোস্ট করা হয়েছে। স্থানীয়...