image_266371.a
দেশে বাঁধ সংরক্ষণ ও নদীখাল পুনঃখননের লক্ষে প্রায় দেড় হাজার টাকা প্রাক্কলিত ব্যয় সম্বলিত প্রকল্প প্রস্তাব বর্তমানে পরিকল্পনা কমিশনে অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে। আজ মঙ্গলবার বিকেলে জাতীয় সংসদে পানিসম্পদমন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ এ তথ্য জানান।

সরকারি দলের সদস্য তাজুল ইসলামের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী আরো জানান, সমগ্র বাংলাদেশব্যাপী বাঁধ পুনরাকৃতিকরণ ও নদীখাল পুনঃখননের লক্ষে ১৪০৫ দশমিক ৬৯ কোটি টাকা প্রাক্কলিত ব্যয় সম্বলিত ‘রিহ্যাবিলিটেশন অফ এমব্যাংকমেন্টস অ্যান্ড এক্সকাভেশন অব রিভারস/খালস’ শীর্ষক প্রকল্প প্রস্তাব বর্তমানে পরিকল্পনা কমিশনে অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে। এই প্রকল্পের আওতায় তিন হাজার কিলোমিটার খাল খনন বা পুনঃখনন এবং পাঁচ হাজার ৮৫০ কিলোমিটার বাঁধ মেরামত বা পুনরাকৃতিকরণের পরিকল্পনা রয়েছে। একনেক কর্তৃক প্রকল্পটি অনুমোদিত হলে নদীখাল খননের কর্মসূচি হাতে নেওয়া হবে বলে তিনি জানান। সংসদ সদস্য আবদুল ওয়াদুদের প্রশ্নের জবাবে পানিসম্পদমন্ত্রী জানান, গঙ্গা ব্যারেজ নির্মাণের জন্য সম্ভাব্যতা সমীক্ষা সমাপ্ত করা হয়েছে। সমীক্ষার সুপারিশের আলোকে ব্যারেজ নির্মাণের ডিটেইলড নকশা তৈরির কাজ সমাপ্ত হয়েছে। এ ছাড়া ব্যারেজ সংশ্লিষ্ট অন্যান্য অবকাঠামো ও অফটেক স্ট্রাকচারের ডিজাইন কাজ সম্পন্ন হয়েছে। তিনি জানান, গঙ্গা ব্যারেজ নির্মিত হলে ২৯০০ মিলিয়ন ঘন মিটার পানি ধারণযোগ্য একটি বিশাল জলাধার সৃষ্টি করবে, যার ফলে ভূগর্ভস্থ পানির ব্যবহার কমে আসবে।

সরকারি দলের সংসদ সদস্য আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিমের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী জানান, নদী বিধৌত এলাকার পাঁচ ভাগ নদীই ভাঙনের ঝূঁকির সন্মুখীন। বিগত তিন দশকে গঙ্গা, যমুনা ও পদ্মার ভাঙনে প্রায় এক লাখ ৮০ হাজার হেক্টর (১৮০০ বর্গ কিলোমিটার) ভূমি নদীগর্ভে বিলীন হয়েছে। তিনি আরো জানান, প্রতিবছর প্রায় দুই হাজার ৪০০ কিলোমিটার নদীর তীর ভাঙনের ঝূঁকির মুখে থাকে। কমবেশি ১০০টি উপজেলা বন্যা ও নদী ভাঙনের শিকার হয়। নদী ভেদে প্রতি বছর ৬০ মিটার থেকে এক হাজার ৬০০ মিটার পর্যন্ত নদীর তীর স্থানান্তরিত হয়। বর্তমানে নদী শাসনের ফলে নদীর তীর ভাঙনের তীব্রতা বছরে ১০ হাজার হেক্টর থেকে ছয় হাজার হেক্টর (৬০ কিলোমিটার) নেমে এসেছে।

অর্ণব ভট্টজাতীয়
দেশে বাঁধ সংরক্ষণ ও নদীখাল পুনঃখননের লক্ষে প্রায় দেড় হাজার টাকা প্রাক্কলিত ব্যয় সম্বলিত প্রকল্প প্রস্তাব বর্তমানে পরিকল্পনা কমিশনে অনুমোদনের অপেক্ষায় রয়েছে। আজ মঙ্গলবার বিকেলে জাতীয় সংসদে পানিসম্পদমন্ত্রী আনিসুল ইসলাম মাহমুদ এ তথ্য জানান। সরকারি দলের সদস্য তাজুল ইসলামের প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রী আরো জানান, সমগ্র বাংলাদেশব্যাপী বাঁধ পুনরাকৃতিকরণ ও নদীখাল...