Img-4-290x131
জাতির জনক বঙ্গবন্ধুসহ তার পরিবারের সদস্যদের হত্যায় জড়িত খুনিদের বিচারই নয়, যারা এর পেছনে থেকে হত্যাকাণ্ডে নেতৃত্ব দিয়েছেন তাদের মুখোশ জাতির সামনে উন্মোচন করার আহ্বান জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) উপাচার্য অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক।

শুক্রবার (১৪ আগস্ট) সকালে জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধু পরিষদ আয়োজিত ‘জাতীয় শোক দিবসের এক আলোচনা সভায়’ তিনি এ আহ্বান জানান।

আরেফিন সিদ্দিক বলেন, জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধুর খুনিদের মুক্তি দিয়েই ক্ষান্ত হয়নি, দেশে-বিদেশে তাদের প্রতিষ্ঠিত করার জন্য সব রকম চেষ্টাও করেছেন।

জিয়াউর রহমান বঙ্গবন্ধুর খুনিদের প্রতিষ্ঠিত করে গেছেন এমন মন্তব্য করে তিনি বলেন, বিভিন্ন দূতাবাসে চাকরি দিয়ে তাদের ভীত মজবুত করেছেন জিয়া। বঙ্গবন্ধুর খুনিরাই পরবর্তীতে রাষ্ট্র পরিচালনায় এসেছে উল্লেখ করে তিনি আরও বলেন, যারা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেছিল তারা পরবর্তীতে দেশ পরিচালনার দায়িত্বে নিয়োজিত হয়। এজন্যই হত্যাকাণ্ডের বিচার বিলম্বিত হয়েছে।

‘দীর্ঘ সময় পরে হলেও বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে এ হত্যাকাণ্ডের বিচার করা সম্ভব হয়েছে। শুধু খুনিদের বিচার করলেই হবে না, যারা পেছন থেকে এ হত্যাকাণ্ডে নেতৃত্ব দিয়েছে তাদের মুখোশ জাতির সামনে উন্মোচন করতে হবে’।

১৫ আগস্ট জাতির পিতা নিহত না হলে বাংলাদেশ আজকে মালয়েশিয়া, থাইল্যান্ড, সিঙ্গাপুরের মতো উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত হত বলেও মনে করেন উপাচার্য অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক।

বঙ্গবন্ধু পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক ডা. এস এ মালেকের সভাপতিত্বে আরও বক্তব্য দেন, বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপ উপাচার্য অধ্যাপক ড. হাবিবুর রহমান, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফার্মেসি অনুষদের সাবেক ডিন আ ব ম ফারুক, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতির সভাপতি ড. আনন্দ কুমার সাহা প্রমুখ।

তুনতুন হাসানপ্রথম পাতা
জাতির জনক বঙ্গবন্ধুসহ তার পরিবারের সদস্যদের হত্যায় জড়িত খুনিদের বিচারই নয়, যারা এর পেছনে থেকে হত্যাকাণ্ডে নেতৃত্ব দিয়েছেন তাদের মুখোশ জাতির সামনে উন্মোচন করার আহ্বান জানিয়েছেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) উপাচার্য অধ্যাপক আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক। শুক্রবার (১৪ আগস্ট) সকালে জাতীয় প্রেসক্লাব মিলনায়তনে বঙ্গবন্ধু পরিষদ আয়োজিত ‘জাতীয় শোক দিবসের...