1439098922
গাজীপুরের টঙ্গীর পাগার এলাকায় প্রেমিকা খুনের অভিযোগে প্রেমিককে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার বিকালে তাকে আটক করা হয়। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজ উদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে পুলিশ। শান্তা নেত্রকোনার নাগড়ার ইসলাম উদ্দিনের মেয়ে।

টঙ্গী মডেল থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক আবুল বাশার ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, শান্তা টঙ্গীর একটি টেক্সস্টাইল মিলে কাজ করত। একই কারখানার রুকন নামে এক কর্মীর সাথে শান্তার সখ্যতা গড়ে ওঠে। তাদের মধ্যে গত সাত মাস যাবত প্রেমের সম্পর্ক চলে আসছিল। এই সূত্র ধরে গতকাল বিকালে টঙ্গীর পাগার এলাকায় রুকনের ভাড়া বাড়িতে তাদের সাক্ষাত হয়। এসময় দুজনের মধ্যে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে প্রেমিক শান্তার গলায় ওড়না পেঁচিয়ে তাকে হত্যা করে খাটের নিচে লুকিয়ে রাখে। তখন রুকনের এক ফুফাত ভাই ঐ ঘরে গেলে হত্যার কথা তাকে জানালে সে কৌশলে ঘরের বাইরে এসে ঘরের দরজা বন্ধ করে টঙ্গী থানায় খবর দেয়।

খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে লাশ উদ্ধার করে ও রুকনকে আটক করে। এই ঘটনায় শান্তার বাবা ইসলাম উদ্দিন বাদী হয়ে টঙ্গী মডেল থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেছেন।

তাহসিনা সুলতানাস্বদেশের খবর
গাজীপুরের টঙ্গীর পাগার এলাকায় প্রেমিকা খুনের অভিযোগে প্রেমিককে আটক করেছে পুলিশ। শনিবার বিকালে তাকে আটক করা হয়। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য গাজীপুর শহীদ তাজ উদ্দিন মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে পুলিশ। শান্তা নেত্রকোনার নাগড়ার ইসলাম উদ্দিনের মেয়ে। টঙ্গী মডেল থানার উপ-পুলিশ পরিদর্শক আবুল বাশার ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে ...