87191_x4
খুলনার বহুল আলোচিত শিশু রাকিব হত্যা মামলার প্রধান দুই আসামি শরীফ ও মিন্টু খানকে খুলনা থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। আজ সোমবার তাদেরকে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হবে। তবে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে শরীফ ও মিন্টু খান মুখ খুলতে শুরু করেছে।
মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই কাজী মোস্তাক আহমেদ ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, রাকিব হত্যার প্রধান দুই আসামি শরীফ ও মিন্টু খান সুস্থ হয়ে উঠলে গতকাল খুলনা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ছেড়ে দেয়। পরে তাদেরকে প্রিজন সেল থেকে খুলনা থানায় আনা হয়। থানায় এনে তাদেরকে দফায় দফায় জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। জিজ্ঞাসাবাদে তারা এ হত্যা সম্পর্কে বেশকিছু তথ্য দিয়েছে বলে জানা গেছে।
এসআই কাজী মোস্তাক আহমেদ জানান, গ্রেপ্তার হওয়ার পর শরীফ, তার মা বিউটি বেগম এবং পাতানো চাচা মিন্টু খান তাদের স্থায়ী ঠিকানা ভুল দিয়েছিল। গতকাল শরীফ ও মিন্টু খানকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে তারা আসল ঠিকানা দেয়। গতকাল দেয়া ঠিকানা অনুযায়ী বিউটি ও তার ছেলে শরীফের বাড়ি বাগেরহাট জেলার কচুয়া উপজেলার সাংদিয়া গ্রামে। আর মিন্টু খানের বাড়ি পিরোজপুর জেলার বৈরমপুর গ্রামে। তবে এ ঠিকানা সত্য কিনা তা যাচাই-বাছাই করার জন্য সংশ্লিষ্ট থানায় মেসেজ পাঠানো হয়েছে। আজ শরীফ ও মিন্টু খানকে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করবেন।
উল্লেখ্য, গত ৩রা আগস্ট বিকালে নগরীর টুটপাড়া কবরখানা মোড় এলাকায় পৈশাচিক নির্যাতন চালিয়ে গ্যারেজের কর্মচারী শিশু রাকিব (১২) কে হত্যা করা হয়। এ ঘটনায় পরদিন নিহত শিশুর বাবা মো. নুরু আলম বাদী হয়ে শরীফ মটরসের মালিক শরীফ, তার মা বিউটি বেগম ও পাতানো চাচা মিন্টু খানের নামে হত্যা মামলা দায়ের করেন (যার নং-০৪)। এ মামলায় গ্রেফতারকৃত বিউটি বেগম হত্যার ঘটনায় নিজেকে সম্পৃক্ত করে আদালতে ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন। এ ছাড়া তিনজন সাক্ষী ১৬৪ ধারায় জবানবন্দি প্রদান করেন।

তুনতুন হাসানপ্রথম পাতা
খুলনার বহুল আলোচিত শিশু রাকিব হত্যা মামলার প্রধান দুই আসামি শরীফ ও মিন্টু খানকে খুলনা থানায় এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। আজ সোমবার তাদেরকে আদালতে হাজির করে ১০ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হবে। তবে পুলিশের জিজ্ঞাসাবাদে শরীফ ও মিন্টু খান মুখ খুলতে শুরু করেছে। মামলার তদন্ত কর্মকর্তা এসআই কাজী মোস্তাক আহমেদ...