1438540389
কোন জ্যোতিষী দিয়ে যদি দিন-ক্ষণ গণনা করে ভাগ্য বিচার করতে বলা হতো তবে তাতে কিছু গরমিল হয়তো হতেই পারতো। কিন্তু স্বচক্ষে না দেখলে বলাই সম্ভব নয় যে একটি দিন একজন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের জন্য কতটা পরিপূর্ণ হতে পারে। হ্যাঁ সেদিন ছিল গতকাল রবিবার। আর দিনটি বোধকরি বাংলাদেশ পুলিশের পরিপূর্ণ ভাগ্যই নির্ধারণের দিন ছিল।

ঠিক একইদিনে পদ সৃষ্টি, পদোন্নতি, সিলেকশন গ্রেড আর টাইমস্কেল প্রদানের নজির নিকট অতীতে কোন প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে ঘটেছে এমনটি ঠাওর করতে পারলেন না-প্রশাসনের কেউই। শুধু কী তাই-গতকাল যখন পদোন্নতি বোর্ডের সভা হওয়ার কথা-তার আগমূহূর্তেও আসছে প্রস্তাব। আর সে প্রস্তাব সভায় পৌঁছে দেয়া হচ্ছে। সাধারণভাবে কোন প্রস্তাব আসলে তা যাচাই-বাছাই করে সভায় উত্থাপন করতে সাতদিন সসয় লাগে। কিন্তু ভাগ্য এমনই সুপ্রসন্ন যে সময়তো লাগেনিই-বরং পদোন্নতি দেয়ার জন্য লোক পাওয়া যায়নি। যখন পদোন্নতির বঞ্চনায় জনপ্রশাসন কাঁদে।

শুভ সমরাটজাতীয়
কোন জ্যোতিষী দিয়ে যদি দিন-ক্ষণ গণনা করে ভাগ্য বিচার করতে বলা হতো তবে তাতে কিছু গরমিল হয়তো হতেই পারতো। কিন্তু স্বচক্ষে না দেখলে বলাই সম্ভব নয় যে একটি দিন একজন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের জন্য কতটা পরিপূর্ণ হতে পারে। হ্যাঁ সেদিন ছিল গতকাল রবিবার। আর দিনটি বোধকরি বাংলাদেশ পুলিশের...