dead atsi sujaul islam ishwardi-01_110135
পাবনার পাকশী পুলিশ ফাড়ির এএসআই সুজাউল ইসলামকে পরিকল্পিতভাবে হাত পা বেঁধে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

রবিবার রাতের কোন এক সময়ে তাকে হত্যা করে নর্থ বেঙ্গল পেপার মিলের পাশের একটি জঙ্গলে লাশ ফেলে রেখে যায়। এ সময় দুর্বৃত্তরা সুজাউলের ব্যবহৃত মোটরসাইকেল এবং মোবাইল ফোন নিয়ে যায়।

সোমবার সকাল ৯ টার দিকে স্থানীয়দের দেয়া সংবাদে পুলিশ জঙ্গল থেকে তার মৃত দেহ উদ্ধার করে। নিহত সুজাউল বগুড়া সদর উপজেলার শেখপাড়া গ্রামের আবুল কাশেমের সন্তান।

ঈশ্বরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বিমান কুমার দাস ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে ঘটনার সত্যতা শিকার করে বলেন, সুজাইল ইসলাম দায়িত্বরত অবস্থায় গতকাল রাত ৮ টার দিকে নিখোঁজ হন। সোমবার সকালে আমরা তার লাশ উদ্ধার করি।

পাবনা সহকারী পুলিশ সুপার (ঈশ্বরদী সার্কেল) শেখ মোহাম্মদ আবু জাহিদ ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, রবিবার বিকেল শিফটে পাকশী পুলিশ ফাঁড়িতে দায়িত্বরত ছিলেন সুজাউল ইসলাম। ডিউটি শেষ হওয়ার কথা ছিল রাত ১২টায়। এর মাঝে রাত ৮টার পর থেকে হঠাৎ করে তার কোনও খোঁজ পাওয়া যাচ্ছিল না। অনেক খোঁজাখুঁজি করেও তার সন্ধান মেলেনি। সোমবার সকালে তার লাশ পাকশী নর্থ বেঙ্গল পেপার মিল থেকে স্টেশন অভিমুখে রাস্তার মাঝে একটি জঙ্গলে পড়ে থাকতে দেখে থানায় খবর দেয় স্থানীয়রা। এরপর পুলিশ তার হাত-পা বাঁধা লাশ উদ্ধার করে। সুজাউল ইসলামের হাত-পা ও মুখ রশি বাঁধা দেখে পুলিশের প্রাথমিক ধারণা তাকে শ্বাসরোধে হত্যা করা হতে পারে। তার শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

http://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2015/10/dead-atsi-sujaul-islam-ishwardi-01_110135.jpghttp://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2015/10/dead-atsi-sujaul-islam-ishwardi-01_110135-300x300.jpgঅর্ণব ভট্টস্বদেশের খবর
পাবনার পাকশী পুলিশ ফাড়ির এএসআই সুজাউল ইসলামকে পরিকল্পিতভাবে হাত পা বেঁধে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা। রবিবার রাতের কোন এক সময়ে তাকে হত্যা করে নর্থ বেঙ্গল পেপার মিলের পাশের একটি জঙ্গলে লাশ ফেলে রেখে যায়। এ সময় দুর্বৃত্তরা সুজাউলের ব্যবহৃত মোটরসাইকেল এবং মোবাইল ফোন নিয়ে যায়। সোমবার সকাল ৯ টার...