1440852420
চট্টগ্রামের পটিয়ায় জামায়াতের নাশকতার গোপন বৈঠক থেকে আটক হওয়া উপজেলা জামায়াতের আমীর মুকিবুল ইসলাম চৌধুরীসহ দক্ষিন চট্টগ্রামের ৯ শীর্ষ নেতাকে শনিবার কারগারে পাঠিয়েছে আদালত। আটক হওয়া দক্ষিন চট্টগ্রামের জামায়াতের ৯ শীর্ষ নেতাকে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়ের করার পর চট্টগ্রাম সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে তোলা হলে আদালতের হাকিম তাদের কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। তবে পুলিশ জানায়, আসামীদের রিমান্ডে আনলে তাদের কাছ থেকে আরো বিস্তারিত তথ্য পাওয়া যাবে।

এ ব্যাপারে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও পটিয়া থানার এস আই শাহ আলম ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, “গ্রেফতারকৃত জামায়াতের ৯ শীর্ষ নেতাকে আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে। তাদের রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করার জন্য আদালতের নিকট আবেদন জানানো হবে। আসামীদের রিমান্ডে আনা হলে বিস্তারিত তথ্য বেরিয়ে আসবে।”

উল্লেখ্য, চট্টগ্রামের পটিয়া পৌর সদরের পাইকপাড়া এলাকায় গত শুক্রবার উপজেলা জামায়াতের আমীর মুকিবুল ইসলাম চৌধুরী ফারুকের বাড়িতে দক্ষিণ চট্টগ্রামের বিভিন্ন উপজেলার দায়িত্বশীলদের নিয়ে নাশকতার পরিকল্পনার গোপন বৈঠক থেকে পুলিশ উপজেলা জামায়াত আমীরসহ দক্ষিন চট্টগ্রামের জামায়াতের ৯ শীর্ষ নেতাকে গ্রেফতার করে। এ সময় পুলিশ তাদের থেকে জিহাদি বই, কিশোরকণ্ঠ পাঠক ফোরামের তালিকা, স্কুল ছাত্রদের শিবিরের রাজনীতিতে জড়ানোর কর্মপরিকল্পনা, তিনদিনব্যাপী লিডারশীপ কর্মসূচীর লিফলেট ও দক্ষিন চট্টগ্রামে জামায়াতের কর্মকাণ্ডের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনার তালিকা জব্দ করে। এই ঘটনায় পটিয়া থানার পুলিশ বাদী হয়ে উপজেলা জামায়াত আমীর মুকিবুল ইসলাম চৌধুরীকে প্রধান আসামী করে অন্য ৮ জামায়াত নেতাদের এজাহারনামীয় ও অজ্ঞাত ৫০ জনকে আসামী করে ১৯৭৪ সালের বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়ের করে।

হীরা পান্নাপ্রথম পাতা
চট্টগ্রামের পটিয়ায় জামায়াতের নাশকতার গোপন বৈঠক থেকে আটক হওয়া উপজেলা জামায়াতের আমীর মুকিবুল ইসলাম চৌধুরীসহ দক্ষিন চট্টগ্রামের ৯ শীর্ষ নেতাকে শনিবার কারগারে পাঠিয়েছে আদালত। আটক হওয়া দক্ষিন চট্টগ্রামের জামায়াতের ৯ শীর্ষ নেতাকে বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়ের করার পর চট্টগ্রাম সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে তোলা হলে আদালতের হাকিম তাদের...