1439989295
স্কুল যাওয়ার পথে নিখোঁজ হওয়ার তিন দিন পর বুধবার দিনাজপুরের নবাবগঞ্জের শাল বাগন থেকে সোহাগী (১৪) নামের ঐ স্কুল ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। সে উপজেলার খটখটিয়া কৃষ্টপুর গ্রামের তারা মিয়ার মেয়ে এবং ঐ এলাকার গোপালগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী।

সোহাগীর বাবা তারা মিয়া বলেন, রবিবার স্কুলের উদ্দেশে বের হয় সোহাগী। এরপর থেকেই সে নিখোঁজ ছিল। বুধবার বিকেলে বাড়ি সংলগ্ন শাল বাগানের একটি গাছের সাথে গলায় ওড়না দিয়ে ফাঁস লাগানো অবস্থায় তার ঝুলন্ত লাশ দেখতে পায় এলাকাবাসী। পরে পুলিশ এসে লাশ উদ্ধার করে। তবে তার দাবি তার মেয়েকে হত্যার পর হত্যকারীরা লাশ ঝুলিয়ে দিয়েছে।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েকজন এলাকাবাসী বলেন, শান্ত প্রকৃতির মেয়ে সোহাগীকে কেউ না কেউ পাশবিক নির্যাতন চালিয়ে হত্যার পর লাশ গাছের সাথে ঝুলিয়ে রেখে চলে গেছে।

থানার ওসি আমিরুল ইসলাম ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মর্গে পাঠানো হয়েছে। রিপোর্ট পাওয়া গেলে মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে।

ওয়াজ কুরুনীজাতীয়
স্কুল যাওয়ার পথে নিখোঁজ হওয়ার তিন দিন পর বুধবার দিনাজপুরের নবাবগঞ্জের শাল বাগন থেকে সোহাগী (১৪) নামের ঐ স্কুল ছাত্রীর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। সে উপজেলার খটখটিয়া কৃষ্টপুর গ্রামের তারা মিয়ার মেয়ে এবং ঐ এলাকার গোপালগঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী। সোহাগীর বাবা তারা মিয়া বলেন, রবিবার...