1779606_10200626482303326_261274034_n_95971
বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার পল্লীতে তিন সন্তানের জননীকে ধর্ষণ করতে গিয়ে গণধোলাই ও পরে বিয়ের পিঁড়িতে বসতে বাধ্য হয়েছেন এক যুবলীগ নেতা। শনিবার সকালে মধুপুর ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক সবুর মিয়া শালিখা দক্ষিণপাড়ার এক গৃহবধূকে ধর্ষণের চেষ্টা করলে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা জানান, স্বামীর মৃত্যুর পর থেকে সন্তানদের নিয়ে বাড়িতে একাই থাকতেন ওই গৃহবধূ। এ সুযোগে তার সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ার চেষ্টা চালান যুবলীগ নেতা সবুর। কিন্তু ওই গৃহবধূ তার প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান করায় শনিবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে তার ঘরে ঢুকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা চালান। এ সময় গৃহবধূর চিৎকারে আশপাশের লোকজন এসে হাতেনাতে ধরে ফেলেন সবুরকে। এরপর গণধোলাই দিয়ে আটকে রাখেন গ্রামবাসী।

কংকা চৌধুরীশেষের পাতা
বগুড়ার সোনাতলা উপজেলার পল্লীতে তিন সন্তানের জননীকে ধর্ষণ করতে গিয়ে গণধোলাই ও পরে বিয়ের পিঁড়িতে বসতে বাধ্য হয়েছেন এক যুবলীগ নেতা। শনিবার সকালে মধুপুর ইউনিয়ন যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক সবুর মিয়া শালিখা দক্ষিণপাড়ার এক গৃহবধূকে ধর্ষণের চেষ্টা করলে এ ঘটনা ঘটে। স্থানীয়রা জানান, স্বামীর মৃত্যুর পর থেকে সন্তানদের নিয়ে বাড়িতে...