লাইফস্টাইল ডেস্ক । ডা. সঞ্চিতা বর্মন
থাইরয়েড গ্রন্থিকে অন্তক্ষরা গ্রন্থি বলা হয়। গলার মাঝখানে এডামস অ্যাপেলের নিচে প্রজাপতির মতো এটি বিন্যস্ত থাকে।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।
থাইরয়েড গ্রন্থি থেকে থাইরয়েড হরমোন নিঃসৃত হয়। এই থাইরয়েড হরমোনের নিঃসরণ বেড়ে বা কমে গেলে শরীরে বিভিন্ন ধরনের সমস্যা সৃষ্টি হয়। হাইপার থাইরয়েডিসম, হাইপোথাইরয়েডিসম, থাইরয়েড টিউমার, ক্যান্সার ইত্যাদি সমস্যা থাইরয়েড গ্রন্থিতে হতে পারে।

থাইরয়েড গ্রন্থিতে কোনো সমস্যা হলে কিছু লক্ষণ দেখা যায়। যেমন- সব সময় ক্লান্তি বোধ করা, সহ্যশক্তি কমে যাওয়া, কোষ্ঠকাঠিন্য, বিষণ্ণতা, গলার স্বর পরিবর্তন হওয়া, হঠাত্ করে ওজনের তারতম্য, কখনো খুব গরম বা ঠাণ্ডা অনুভূত হওয়া, চুল পড়া, ত্বক অতিরিক্ত শুষ্ক হওয়া, পেশি ও হাড়ে ব্যথা হওয়া, মহিলাদের ঋতুস্রাবে সমস্যা ইত্যাদি লক্ষণ দেখা যায়।

তবে লক্ষণ থেকে শুধু থাইরয়েডের সমস্যা হতে পারে তা অনুমান করা সম্ভব। কিন্তু থাইরয়েড গ্রন্থির কী ধরনের সমস্যা হয়েছে তা বের করার জন্য চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী যথাযথ পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাধ্যমে নিশ্চিত হতে হবে এবং সেই অনুযায়ী চিকিত্সা নিতে হবে।
খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

http://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2017/12/151.jpghttp://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2017/12/151-300x300.jpgজান্নাতুল ফেরদৌস মেহরিনস্বাস্থ্য কথা
লাইফস্টাইল ডেস্ক । ডা. সঞ্চিতা বর্মন থাইরয়েড গ্রন্থিকে অন্তক্ষরা গ্রন্থি বলা হয়। গলার মাঝখানে এডামস অ্যাপেলের নিচে প্রজাপতির মতো এটি বিন্যস্ত থাকে।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের। থাইরয়েড গ্রন্থি থেকে থাইরয়েড হরমোন নিঃসৃত হয়। এই থাইরয়েড হরমোনের নিঃসরণ বেড়ে বা কমে গেলে শরীরে বিভিন্ন ধরনের সমস্যা সৃষ্টি হয়।...