f_163987
বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ আনা কোনভাবেই যুক্তিসংগত নয় বলে মনে করে দলটি।

বুধবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির মুখপাত্র ড. আসাদুজ্জামান রিপন ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, ‘আমরা পত্রিকান্তরে জানতে পেরেছি-আমাদের দলের সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যানতারেক রহমান এর একটি বক্তৃতার কিছু অংশকে কেন্দ্র করে সরকারের ডিটেক্টিভ ব্রাঞ্চ ‘সেডিশন’ এর একটি চার্জ গঠন করেছেন। বঙ্গবন্ধু ফাউন্ডেশন এর পক্ষ থেকে আনা অভিযোগের মামলায় ডিটেক্টিভ ব্রাঞ্চ এর ‘সেডিশন’ এর অভিযোগ গঠন করায় আমরা বিস্মিত ও উদ্বিগ্নও।’

আসাদুজ্জামান বলেন, ‘তারেক রহমান যে বক্তব্য দিয়েছেন-তা তিনি নিজে থেকে কিছু বলেননি। তিনি বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের পূর্বাপর পরিস্থিতির উপর প্রকাশিত বিভিন্ন নিবন্ধ, পুস্তক এবং রেফারেন্স দিয়ে তার বক্তব্য রেখেছিলেন।’

বিএনপির এই মুখপাত্র বলেন, ‘এর প্রেক্ষিতে যদি মামলা হয় ও ‘সেডিশন’ চার্জ গঠন হয়-তাহলে ওসব নিবন্ধ ও পুস্তকের লেখকদের বিরুদ্ধেই হওয়া বাঞ্ছনীয় ছিল। কিন্তু তা না করে বিএনপি’র সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমান এর বিরুদ্ধে ‘সেডিশন’ এর চার্জ আনা কোনভাবেই যুক্তিসংগত নয়-তাই আমরা এই প্রক্রিয়ার বিরোধীতা করছি ও নিন্দা জানাচ্ছি।’

আসাদুজ্জামান সংবাদ সম্মেলনে বলেন, ‘আমরা আশা করবো-সরকার রাজনীতিকে রাজনৈতিকভাবেই মোকাবেলা করবেন এবং বিভাজনের রাজনীতির অবসানকল্পে সকল বিতর্ক অবসানে হিংসাশ্রয়ী পথে নয়, দমন-নিপীড়ণের পথে নয়, মামলা-হামলার মাধ্যমে নয়, জাতীয় ঐক্যের প্রক্রিয়ার কথা গভীরভাবে ভাববেন।’

অর্ণব ভট্টজাতীয়
বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ আনা কোনভাবেই যুক্তিসংগত নয় বলে মনে করে দলটি। বুধবার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে বিএনপির মুখপাত্র ড. আসাদুজ্জামান রিপন ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে এ কথা বলেন। তিনি বলেন, 'আমরা পত্রিকান্তরে জানতে পেরেছি-আমাদের দলের...