আদালত প্রতিবেদক ।
প্রত্যেক ডিভোর্সে বাচ্চারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তাদের সবার অনুভূতি একইরকম-বলে মন্তব্য করেছেন হাইকোর্ট। আজ বুধবার আলোচিত শিশু ধ্রুব ও লুব্ধকের মা-বাবার সম্পর্কের অগ্রগতি নিয়ে শুনানিকালে আদালত এ মন্তব্য করেন।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।
বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চ শুনানির শুরুতেই আইনজীবীদের উদ্দেশ্যে বলেন, পরিস্থিতির কী কোনো উন্নতি হয়েছে? আইনজীবী তাপস কান্তি বল বলেন, হ্যাঁ, কিছুটা উন্নতি হয়েছে। মা ছুটি নিয়ে বাচ্চাদের সঙ্গে ঘুরেছে। বাবাও বাচ্চাদের সময় দিয়েছে। কিন্তু এর মধ্যে একটি সমস্যাও দেখা দিয়েছে। ছোট বাচ্চাটির তার বাবাকে রাতে থেকে যাওয়ার আবদার জানালে বাবা রাজি হলেও মা রাজি হননি। রাত ১টায় বৃষ্টির মধ্যে বাবাকে বের হয়ে যেতে হয়েছে।

আদালতে মেহেদী হাসানের পক্ষে শুনানি করেন আইনজীবী তাপস কান্তি বল। আর মল্লিকার পক্ষে শুনানিতে অংশ নেন ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস ও এ কে এম রিয়াদ সলিমুল্লাহ। ২০০২ সালে রাজশাহীর মেয়ে কামরুন্নাহার মল্লিকা এবং মাগুরার ছেলে মেহেদী হাসান বিয়ে করেন। মল্লিকা পেশায় স্কুল শিক্ষিকা আর মেহেদী বেসরকারি ব্যাংকের কর্মকর্তা। তারা দুই সন্তানের বাবা-মা। তবে এক পর্যায়ে এসে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে মনোমালিন্যের সৃষ্টি হয়। গত বছরের মে মাসে নোটিশের মাধ্যমে বিয়ে বিচ্ছেদের প্রক্রিয়া শুরু করেন তারা। তবে এর কিছুদিন আগে দুই সন্তানকে মাগুরায় গ্রামের বাড়ি পাঠিয়ে দেন মেহেদী। বড় ছেলের বয়স এখন ১২ আর ছোট ছেলের ৯ বছর।

ব্যারিস্টার রুহুল কুদ্দুস কাজল বলেন, এটা পুরোপুরি পারিবারিক ইস্যু। সুতরাং দুইজনের মধ্যেই সম্পর্কের উন্নয়নের জন্য আরো সময় লাগবে। আদালত বলেন, তা ঠিক। এটাতো রাতারাতি উন্নতি হবে না। ব্যারিস্টার কাজল বলেন, বাচ্চা দুটি ইতিমধ্যে ঢাকায় স্কুলে ভর্তি হয়েছে। বাচ্চারা খুশি প্রতিদিন মা স্কুলে আনা নেওয়া করছেন। আদালত বলেন, ঠিক আছে। কিন্তু মনে রাখতে হবে, বাচ্চাদের অভিপ্রায় উপেক্ষা করে স্কুলে ভর্তি করলে হয় না।

আদালত বলেন, শুধু এ বিষয় না। প্রত্যেক ডিভোর্সে বাচ্চারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়, এবং তাদের সবার অনুভূতি, কষ্ট একই রকম। হয়তো এ দুটি বাচ্চা আজকে হয়তো আমাদের সাথে অনুভূতি প্রকাশ করার সুযোগ পেয়েছে। সারা দেশের ডিভোর্স দম্পতির সব বাচ্চারই অনুভূতি এক তারা সেটা বলতে পারে না। এ বাবা মা শুনলেও অন্যরা বাচ্চাদের অনুভূতি কানে নিচ্ছে না।
খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

http://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2018/07/35.jpghttp://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2018/07/35-300x254.jpgশুভ সমরাটএক্সক্লুসিভ
আদালত প্রতিবেদক । প্রত্যেক ডিভোর্সে বাচ্চারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তাদের সবার অনুভূতি একইরকম-বলে মন্তব্য করেছেন হাইকোর্ট। আজ বুধবার আলোচিত শিশু ধ্রুব ও লুব্ধকের মা-বাবার সম্পর্কের অগ্রগতি নিয়ে শুনানিকালে আদালত এ মন্তব্য করেন।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের। বিচারপতি জে বি এম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চ শুনানির শুরুতেই আইনজীবীদের...