1442071440
বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিউইয়র্ক সফরকালে জামায়াত-শিবিরের গতিবিধির ওপর সার্বক্ষণিক মনিটরিং করবে নিউইয়র্কে বসবাসরত মুক্তিযোদ্ধা এবং মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সম্মিলিত জোট।

জোটের পক্ষে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জ্যাকসন হাইটসে পালকি পার্টি সেন্টারে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, জেএফকে এয়ারপোর্টে অবতরণের সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে প্রাণঢালা সংবর্ধনা প্রদানের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে যদি জামায়াত-বিএনপি কোনো বাধার সৃষ্টি করতে চায় তাহলে সেটিরও দাতভাঙ্গা জবাব দেয়া হবে প্রচলিত আইনের মধ্যে থেকেই। এজন্যে পূর্বাহ্নেই এয়ারপোর্ট কর্তৃপক্ষসহ সংশ্লিষ্ট সকলকে তা জানিয়ে রাখা হবে।

একাত্তরের ২৫ মার্চ ‘আন্তর্জাতিক গণহত্যা দিবস’ হিসেবে স্বীকৃতির জন্য জাতিসংঘে প্রস্তাব পেশ করতে সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আহ্বান জানানো হয়।

এ সময় শেখ হাসিনাকে অভিনন্দন জানিয়ে আরো বলা হয়, ‘প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশকে বিশ্ব দরবারে উন্নয়নের মডেল ও ২০২১ সালের মধ্যে তিনি বাংলাদেশকে একটি মধ্য আয়ের দেশ হিসাবে প্রতিষ্ঠার যে বৈপ্লবিক কর্মসূচি গ্রহণ করেছেন সে জন্য তাঁকে অভিনন্দন।’

সংবাদ সম্মেলনের লিখিত বক্তব্যে উল্লেখ করা হয়, ‘আমরা লক্ষ করছি প্রবাসে বাংলাদেশ বিরোধী, বাংলাদেশের ইমেজ নষ্টকারী একটি গ্রুপ (জামায়াত-বিএনপি সমর্থক) জনপ্রিয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আসন্ন জাতিসংঘের অধিবেশনে যোগদানকে কেন্দ্র করে তার বিরুদ্ধে ও সর্বপরি দেশের বিরুদ্ধে নানা রকম আস্ফাালনমূলক বক্তব্য বিবৃতি প্রদান করে আসছে। আমরা তাদের হুঁশিয়ার করে দিয়ে বলতে চাই, যুক্তরাষ্ট্রে ফ্রিডম অব স্পিচ রয়েছে- তার মানে এই নয় যে যার যা ইচ্ছা তাই করা যায় বা বলা যায়। আপনারা আইনের মধ্যে থেকে যা কিছু করবেন আমাদের আপত্তি নাই। কিন্তু কোনো রকম অসৌজন্যমূলক ও বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করা হলে কোনো প্রকার ছাড় দেয়া হবে না।’

সংবাদ সম্মেলনের মূল বক্তব্য উপস্থাপন এবং বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন কম্যুনিটি লিডার ও মুক্তিযোদ্ধা ড. প্রদীপ রঞ্জন কর। এ সময় তিনি উল্লেখ করেন, স্বাধীনতা ও মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী, দেশের উন্নয়ন বিরোধী, যুদ্ধাপরাধীদের বিচার বিরোধী, বিদেশে দেশের ভাবমূর্তি নষ্টকারীদের বিরুদ্ধে আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যা ৭টায় জ্যাকসন হাইটেস সর্বস্তরের প্রবাসীর সমন্বয়ে একটি বিক্ষোভ-সমাবেশ করা হবে।

সংবাদ সম্মেলনে নেতৃবৃন্দের মধ্যে আরো ছিলেন মোর্শেদা জামান, সবিতা দাস, খুরশীদ আনোয়ার বাবলু, কামরুল হাসান চৌধুরী, শওকত আকবর রীচি, কৃষিবিদ আশরাফুজ্জামান, হেলাল মাহমুদ, সাঈদুর রহমান, মো. টি মোল্লা, জাকির হোসেন, বিলকিস মোল্লাহ, মো. আকতার হোসেন, উলফত অলী, টমাস দুলু রায় প্রমুখ।
খবর এনআরবি নিউজের।

মিস্টি রহমানপ্রবাস জীবন
বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিউইয়র্ক সফরকালে জামায়াত-শিবিরের গতিবিধির ওপর সার্বক্ষণিক মনিটরিং করবে নিউইয়র্কে বসবাসরত মুক্তিযোদ্ধা এবং মুক্তিযুদ্ধের পক্ষের সম্মিলিত জোট। জোটের পক্ষে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় জ্যাকসন হাইটসে পালকি পার্টি সেন্টারে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, জেএফকে এয়ারপোর্টে অবতরণের সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে প্রাণঢালা সংবর্ধনা প্রদানের শান্তিপূর্ণ কর্মসূচিতে যদি...