তথ্য ও প্রযুক্তি প্রতিবেদক।
স্মার্টফোন অ্যাপভিত্তিক রাইড শেয়ারিং নেটওয়ার্ক উবার জানিয়েছে, ২০১৬ সালে তাদের ৫ কোটি ৭০ লাখ গ্রাহকের তথ্য চুরি করে হ্যাকাররা।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।
তবে গোপন রাখা হয় বিপুল সংখ্যক যাত্রী ও চালকের তথ্য চুরির বিষয়টি। পরে গ্রাহকদের ব্যক্তিগত ওইসব তথ্য মুছে ফেলতে হ্যাকারদের এক লাখ ডলার দিতে হয়েছিল বলেও জানাচ্ছে তারা।
সর্বপ্রথম ব্লুমবার্গের ফাঁস করা তথ্যের ভিত্তিতে ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা- বিবিসি জানাচ্ছে, পুরো ব্যাপারটিই জানতেন উবারের সাবেক প্রধান নির্বাহী ট্রাভিস কালানিক। হ্যাকাররা মোট ৫ কোটি ৭০ লাখ গ্রাহকের নাম, ইমেইল ঠিকানা ও মোবাইল ফোন নম্বর চুরি করে। তাদের মধ্যে ছয় লাখ চালকের নাম ও লাইসেন্সের তথ্যও হাতিয়ে নেয় হ্যাকাররা।
পরে ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য নিজেদের ওয়েবসাইটে একটি পেইজ খুলেছে তারা। এতে চালকদের জন্য সহায়তার ব্যবস্থা করলেও যাত্রীদের জন্য তেমন কোনো উদ্যোগ নেয়া হয়নি। উবারের প্রধান নির্বাহী দারা খাসরোশাহী বলেন, চুরি যাওয়া তথ্য ব্যবহার করে কারও ক্ষতি করার কোনো ঘটনা তারা দেখেননি। ক্ষতিগ্রস্তদের অ্যাকাউন্টগুলো তারা পর্যবেক্ষণ করছেন এবং ওই গ্রাহকদের সতর্ক করা হয়েছে। উবার গ্রাহকদের তথ্য চুরির এ খবর প্রকাশিত হওয়ার পর কোম্পানির প্রধান নিরাপত্তা কর্মকর্তা জো সুলিভান পদত্যাগ করেছেন।
খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের। সূত্র : বিবিসি।

http://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2017/11/1029.jpghttp://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2017/11/1029-300x300.jpgশিশির সমরাটবিজ্ঞান ও প্রযুক্তি
তথ্য ও প্রযুক্তি প্রতিবেদক। স্মার্টফোন অ্যাপভিত্তিক রাইড শেয়ারিং নেটওয়ার্ক উবার জানিয়েছে, ২০১৬ সালে তাদের ৫ কোটি ৭০ লাখ গ্রাহকের তথ্য চুরি করে হ্যাকাররা।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের। তবে গোপন রাখা হয় বিপুল সংখ্যক যাত্রী ও চালকের তথ্য চুরির বিষয়টি। পরে গ্রাহকদের ব্যক্তিগত ওইসব তথ্য মুছে ফেলতে হ্যাকারদের এক লাখ...