aereo_97766
চামড়া দিয়ে জুতা, ব্যাগ এরকম আরও কিছু তৈরির কথা সবারই জানা। কিন্তু তাই বলে চামড়া দিয়ে গাড়ি কিংবা বিমান বানানোও কি সম্ভব! আপনি হয়তো ভাবছেন, খেলনা বিমানের কথা বলা হচ্ছে। না, আসল বিমানের কথাই বলা হচ্ছে। আপনার আমার কাছে অসম্ভব মনে হলেও, চেন্নাইয়ের সেন্ট্রাল লেদার রিসার্চ ইনস্টিটিউট (সিএলআরআই)-এর বিজ্ঞানীরা বলছেন, এটা কোনও কঠিন কাজ নয়। অলীক কল্পনাও নয়। শুধু কল্পনার স্তরে নেই, অনেক দূর এগিয়েও গিয়েছেন তারা।

ওই গবেষকরা জানান, চামড়ার কঠিন বর্জ্য থেকে বিশেষ ধরনের ন্যানো-কম্পোজিট মেটিরিয়াল তারা তৈরি করেছেন। সেই যৌগটি যথেষ্টই শক্তপোক্ত। অনায়াসে গাড়ির বডি তৈরি হতে পারে। বাইকের তো পারেই। এমনকী প্লেন বা বিমানের বডিও তৈরি করা যাবে এই যৌগে।

শুধু তাই নয়, গবেষকরা বলছেন, এসবের বাইরেও দৈনন্দিন ব্যবহার্য আরও অনেক কিছুই তৈরি হতে পারে চামড়ার বর্জ্য থেকে।বৈদ্যুতিক স্যুইচ থেকে কম্পিউটার ক্যাবিনেট এমনকী শক্তপোক্ত দড়িও তৈরি হতে পারে।

বাতিল চামড়ার সঙ্গে কিছু পলিমার ও ন্যানোপার্টিকেল মিশিয়ে বিশেষ এই যৌগটি তৈরি করা হয়। শক্তির বিচারে এই যৌগটি ধাতব পদার্থের সঙ্গেই তুলনীয়। তারা জানান, যে পলিমারটি ব্যবহার করা হয়, তা সিন্থেটিক রাবারের মতোই কাজ করে।

সিএলআরআই এর বিজ্ঞানীরা জানান, চামড়া তৈরির সময় এই যে বর্জ্য পদার্থ উত্পন্ন হয়, তাতে নানা রাসায়নিক থাকায় দূষণও ছড়ায়। ধাতব কঠিন এই যৌগটি তৈরি হলে, সেই দূষণ আর থাকবে না। তারা জানান, জার্মানিতে পলিমার মেটেরিয়াল দিয়ে বিমান তৈরি হলেও, কেউ ‘বাফিং ডাস্ট’ দিয়ে বিমান বানায়নি।

হীরা পান্নাঅন্যান্য
চামড়া দিয়ে জুতা, ব্যাগ এরকম আরও কিছু তৈরির কথা সবারই জানা। কিন্তু তাই বলে চামড়া দিয়ে গাড়ি কিংবা বিমান বানানোও কি সম্ভব! আপনি হয়তো ভাবছেন, খেলনা বিমানের কথা বলা হচ্ছে। না, আসল বিমানের কথাই বলা হচ্ছে। আপনার আমার কাছে অসম্ভব মনে হলেও, চেন্নাইয়ের সেন্ট্রাল লেদার রিসার্চ ইনস্টিটিউট (সিএলআরআই)-এর বিজ্ঞানীরা...