সাংস্কৃতিক প্রতিবেদক ।
সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বলেছেন, চলচ্চিত্র একটি দেশের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যের স্মারক। চলচ্চিত্রের মাধ্যমে আমরা একটি দেশের সংস্কৃতি, জীবনধারা ও ইতিহাস ঐতিহ্য সম্পর্কে জানতে পারি।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

আজ রবিবার রাজধানীর জাতীয় জাদুঘরের মূল মিলনায়তনে ঢাকাস্থ কোরিয়ান দূতাবাসের আয়োজনে ‘কোরিয়ান ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল ২০১৭’ এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এ কথা বলেন তিনি।

সংস্কৃতিমন্ত্রী বলেন, পৃথিবীর সবদেশে ভ্রমণ করার সুযোগ হয়তো আমাদের হয় না, কিন্তু চলচ্চিত্র, নাটক, সংগীত, নৃত্য ও চিত্রপ্রদর্শনীসহ বিভিন্ন ধরনের সাংস্কৃতিক বিনিময় আমাদের পারস্পরিক যোগাযোগ ও সহযোগিতার ক্ষেত্রে বৃদ্ধিতে সহায়তা করে।

দক্ষিণ কোরিয়া ও বাংলাদেশের মধ্যে সাংস্কৃতিক বিনিময় হচ্ছে এবং তা আরো বৃদ্ধি পেয়েছে একথা উল্লেখ করে সংস্কৃতিমন্ত্রী বলেন,সম্প্রতি দক্ষিণ কোরিয়াতে অনুষ্ঠিত ইমিগ্র্যান্ট ফেস্টিভালে বাংলাদেশ প্রথম স্থান অধিকার করেছে, এটা অত্যন্ত খুশির খবর।

তিনি বলেন, দক্ষিণ কোরিয়া শক্তিশালী অর্থনীতির দেশ।তারা বাংলাদেশ জাদুঘরের উন্নয়নসহ বাংলাদেশের বিভিন্ন উন্নয়ন প্রকল্পে বিনিয়োগ করছে। চলচ্চিত্র উৎসবসহ এ ধরনের কর্মসূচির মাধ্যমে দুই দেশের সম্পর্ক আরো জোরদার হবে বলেও জানান তিনি।

অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তৃতা করেন দক্ষিণ কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত এহ্যান সিওয়ং-দো। এসময় উপস্থিত ছিলেন জাতীয় জাদুঘরের মহাপরিচালক ফয়জুল লতিফ চৌধুরী।
খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

http://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2017/11/1023.jpghttp://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2017/11/1023-300x300.jpgশিশির সমরাটজাতীয়
সাংস্কৃতিক প্রতিবেদক । সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর বলেছেন, চলচ্চিত্র একটি দেশের সংস্কৃতি ও ঐতিহ্যের স্মারক। চলচ্চিত্রের মাধ্যমে আমরা একটি দেশের সংস্কৃতি, জীবনধারা ও ইতিহাস ঐতিহ্য সম্পর্কে জানতে পারি।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের। আজ রবিবার রাজধানীর জাতীয় জাদুঘরের মূল মিলনায়তনে ঢাকাস্থ কোরিয়ান দূতাবাসের আয়োজনে ‘কোরিয়ান ফিল্ম ফেস্টিভ্যাল ২০১৭’ এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে...