1_107548
থামছে না মহাসড়কে পশুর ট্রাকে চাঁদাবাজি। গতকাল রাজধানীর মানিক মিয়া এভিনিউতে চার গরু ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে গরুর ট্রাক ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। এদিকে জোরপূর্বক পশুবোঝাই ট্রাক বিভিন্ন হাটে ঢোকানোর ঘটনায় দারুণ অস্বস্তিতে রয়েছেন ট্রাকচালক ও গরু ব্যবসায়ীরা। ট্রাক ঢোকাতে রাজি না হওয়ায় রাজধানীর অনেক স্থানে ট্রাকচালকদের মারধরের ঘটনা ঘটেছে। চাঁদাবাজদের উৎপাত থেকে রক্ষার দায়িত্বে থাকা খোদ পুলিশের বিরুদ্ধেও উঠেছে নানা অভিযোগ। এ প্রসঙ্গে হাইওয়ে পুলিশের প্রধান উপমহাপরিদর্শক মলি্লক ফখরুল ইসলাম ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, অভিযোগের বিষয় তদারকির জন্য মহাসড়কে ইতিমধ্যে সাদা পোশাকে পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। একই সঙ্গে হাইওয়ে পুলিশের সদস্যদের বলে দেওয়া হয়েছে পুলিশ সুপারের সিদ্ধান্ত ছাড়া কোনো মামলা না দেওয়ার জন্য। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই পুলিশ ও শ্রমিক সমিতি মিলেমিশে ওঠাচ্ছে চাঁদা। উত্তরবঙ্গের রংপুর থেকে ঢাকা পর্যন্ত গরুর ট্রাক নিয়ে আসতে চাঁদা দিতে হচ্ছে মোট পাঁচ জায়গায়। অন্যদিকে দেশের দক্ষিণ-পশ্চিমাঞ্চলের জেলাগুলো থেকে রাজধানী পর্যন্ত দিতে হচ্ছে তিন থেকে পাঁচটি ঘাটে চাঁদা। ট্রাকচালকরা তাদের বহনকৃত পণ্য গন্তব্যে পেঁৗছে দিতে নীরবে বাধ্য হয়েই দিচ্ছেন চাহিদাকৃত চাঁদা। গতকাল গাবতলী, রায়েরবাজার, বনরূপা আবাসিক এলাকা এবং খিলক্ষেত ৩০০ ফুটের পাশের পশুর হাটে পশু নিয়ে আসা ট্রাকচালকদের সঙ্গে কথা বলে এসব তথ্য জানা গেছে।

এর আগে ৭ সেপ্টেম্বর পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজি) এ কে এম শহীদুল হক পুলিশ সদর দফতরে সংবাদ সম্মেলন করে বলেছিলেন, পুলিশ সুনির্দিষ্ট তথ্য ছাড়া রাস্তায় কোরবানির পশুবাহী কোনো ট্রাক থামাবে না। এমনকি কাগজপত্র পরীক্ষার অজুহাতেও পশুবাহী ট্রাক যাতে থামানো না হয়, এ ব্যাপারে মাঠপর্যায়ের কর্মকর্তাদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

কিন্তু ট্রাকচালকরা বলছেন, তাদের চাঁদা দিতেই হচ্ছে। পুলিশও রাস্তায় গাড়ি থামানোর জন্য সংকেত দিচ্ছে। গাইবান্ধার ট্রাকচালক রহমত আলী বলেন, ‘মুই রংপুর থাকি গরুর আনিছু। মুই প্রথমেই মিঠাপুকুর হাইওয়ে পুলিশক ২০০ টাকা দিছু। আধরাইতে বগুড়ার নন্দীগ্রামত পুলিশ মোক থামাইছে। ওইঠ্যাও দিছু ১০০ টাকা। বঙ্গবন্ধু সেতুর আগে দিছু ২০০। পরে টাঙ্গাইলের এলেঙ্গায় মুই পুলিশকে দিছু ১০০ টাকা।’ একই অভিজ্ঞতার কথা বলেন, নীলফামারী থেকে আসা ট্রাকচালক পবন মিয়াও। চুয়াডাঙ্গা থেকে আসা ব্যবসায়ী আজমল হোসেন ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, ‘কুষ্টিয়ায় পুলিশকে ১০০, ঝিনাইদহে পুলিশকে ১০০ ও শ্রমিক সমিতিকে ১০০ এবং ঘাটে দৌলতদিয়া প্রান্তে ফেরিতে সিরিয়ালের জন্য ২০০ আর পুলিশকে ১০০ টাকা দিতে হয়েছে। তবে ঘাট পার হয়ে কোথাও কোনো টাকা দিতে হয়নি।’ এদিকে গতকাল সরেজমিনে গাবতলী হাটে গিয়ে দেখা গেছে, কোরবানির জন্য আনা গরু বাঁধার অস্থায়ী খুঁটিগুলো এখনো খালি। তবে কিছু সময় পরপরই আসছে গরুবোঝাই ট্রাক। গতকালও তেমন একটা বেচা-কেনা হয়নি বলে জানিয়েছেন বিক্রেতারা। কুষ্টিয়ার ভেড়ামারার ব্যবসায়ী সাইদুর রহমান এই প্রতিবেদককে বলেন, ‘ভাই! বৃহস্পতিবার ১৪টি গরু নিয়ে হাটে আইছি। এহনও একটা গরু বিক্রি করাত পারি নাই। নিয়মমাফিক খাবারও দিতে পারছি না গরুগুলোকে। আবার হাটের হোটেলগুলোতে খাবারের দামও অনেক চড়া। কপালে যে কী আছে আল্লাহই ভালো জানেন।’ রায়েরবাজার হাটে ঝিনাইদহ থেকে আসা ব্যবসায়ী কাফিল উদ্দীন ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, ‘৩৫ হাজার টাকায় ট্রাক ভাড়া কইরা ১৮টি গরু লইয়া আইছি। ভাই! ঝিনাইদহেই দিছি ১০০ টাকা। টাঙ্গাইলে ২৫০ টাকা চাঁদা দিতে হয়েছে।’ পাবনার সুজানগর থেকে আসা রমজান আলী ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, ‘আশুলিয়া দিয়ে আসার সময় স্থানীয় লোকজন ট্রাক আটকিয়ে রেখেছিল কিছুক্ষণ। পরে ২০০ টাকা দিলে তারা ট্রাক ছেড়ে দেয়।’ খিলক্ষেত বনরূপা আবাসিক এলাকার পশুর হাটের ইজারাদার মো. আসলাম উদদীন ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, ‘শুক্রবার দিবাগত গভীর রাতে উত্তরা জসীমউদ্দীন রোড, কসাইবাড়ী ও কাওলায় দুজন ট্রাকচালককে বেধড়ক মারধর করা হয়েছে। তাদের উদ্ধার করে ক্লিনিকে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। ওই সময় জোরপূর্বক আটটি ট্রাক আশিয়ান পশুর হাটে ঢোকাতে বাধ্য করেছে কিছু দুর্বৃত্ত। এসব বিষয় গুলশান বিভাগের উপকমিশনারকে অবহিত করা হয়েছে।’ মোহাম্মদপুর রায়েরবাজার হাটের ইজারাদার তারেকুজ্জামান রাজীব ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, ‘বেড়িবাঁধ তিন রাস্তার মোড়ে হাজারীবাগ থানার পুলিশ জোরপূর্বক ট্রাকগুলোকে উদ্দ্যেশ্যমূলকভাবে হাজারীবাগ এলাকায় পাঠিয়ে দিচ্ছে। পুলিশের এমন আচরণে সত্যিই আমরা অবাক।’ হাজারীবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলিমুজ্জামান ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে বলেন, ‘তিন রাস্তার মোড় আমার থানা এলাকার মধ্যে নয়। তাই সেখানে হাজারীবাগ থানা পুলিশের কোনো সদস্য যাওয়ার প্রশ্নই ওঠে না।’

কুপিয়ে ট্রাক ছিনতাই : রাজধানীতে কোরবানির পশুর হাটের নিরাপত্তায় পুলিশের কঠোর নজরদারির মধ্যেও জাতীয় সংসদ ভবনের সামনে থেকে ১৬টি গরুসহ একটি ট্রাক ছিনতাই হয়েছে। এ ঘটনায় মাসুম, সুজন, ঠাণ্ডু ও তানজিমুল নামে চার গরু ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে ও পিটিয়ে আহত করা হয়েছে। তারা ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতাল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। তাদের বাড়ি ঝিনাইদহ সদর উপজেলার মহামায়া গ্রামে। গতকাল রাত ২টার দিকে মানিক মিয়া এভিনিউতে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সুজন নামে এক ট্রাকচালককে আটক করেছে পুলিশ। আহত গরু ব্যবসায়ীরা ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, গরুভর্তি দুটি ট্রাক নিয়ে ঝিনাইদহের মহামায়া থেকে বাড্ডার আফতাবনগরের হাটে আসছিলেন। ঢাকা আসার পথে তাদের একটি গরু অসুস্থ হয়ে পড়ে। ট্রাকচালক সংসদ ভবনের সামনে মানিক মিয়া এভিনিউতে গাড়ি থামালে একটি পিকআপ ভ্যানে কয়েকজন দুর্বৃত্ত এসে তাদের মারধর করে। একপর্যায়ে ব্যবসায়ীদের জিম্মি করে ট্রাকটি ছিনিয়ে নিয়ে চলে যায়। পরে আহতদের পিকআপ ভ্যানে তুলে রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে ঘুরিয়ে বিভিন্ন জায়গায় ফেলে চলে যায়। তারা অভিযোগ করেন, ড্রাইভারের যোগসাজশে কয়েকজন দুর্বৃত্ত তাদের ১৬টি গরুসহ ট্রাকটি ছিনতাই করে নিয়ে যায়। এদিকে ঝিনাইদহ থেকে আসা গরুর ব্যবসায়ী নজরুল ইসলাম পুলিশের কাছে অভিযোগ করেন, তিনি পেছনের ট্রাকে ছিলেন। তাদের ট্রাকটি সংসদ ভবন এলাকায় সামনের ট্রাককে পাশ কাটিয়ে আফতাবনগর হাটে পেঁৗছায়। পরে দেখা যায় অন্য ট্রাকটি আসছে না। তখন ট্রাকের চালক, হেলপার ও ওই ট্রাকে থাকা ব্যবসায়ীদের সঙ্গে যোগাযোগের চেষ্টা করলে তাদের মোবাইল ফোন বন্ধ পাওয়া যায়। শেরেবাংলানগর থানার ওসি জি জি বিশ্বাস ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, ব্যবসায়ীরা দুটি ট্রাক নিয়ে ঢাকায় এলে একটি ট্রাক ছিনতাই হয়। আহত ব্যবসায়ীদের চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। এদিকে আশুলিয়া থেকে গরু ব্যবসায়ীদের ছিনতাই হওয়া ট্রাকটি পরিত্যক্ত অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে। তবে ট্রাকের চালক ও হেলপারকে পাওয়া যায়নি। এ ঘটনায় সুজন নামে এক ট্রাকচালককে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়েছে। তিনি আফতাবনগরে যে ট্রাকটি গরু নিয়ে পেঁৗছে সেই ট্রাকের চালক। ছিনতাই হওয়া গরু উদ্ধারের চেষ্টা করা হচ্ছে। এ ছাড়া গতকাল ভোরে সোনারগাঁও হোটেলের সামনে দেলোয়ার হোসেন নামে এক ব্যবসায়ীকে মারধর করে মোটরসাইকেল ও ৩১ হাজার টাকা নিয়ে গেছে দুর্বৃত্তরা। তিনি ঢামেক হাসপাতাল থেকে প্রাথমিক চিকিৎসা নিয়েছেন। তার বাবার নাম আবদুর রউফ। বাড়ি তেজগাঁওয়ের তেজতুরী বাজার এলাকায়।

সুরুজ বাঙালীঅন্যান্য
থামছে না মহাসড়কে পশুর ট্রাকে চাঁদাবাজি। গতকাল রাজধানীর মানিক মিয়া এভিনিউতে চার গরু ব্যবসায়ীকে কুপিয়ে গরুর ট্রাক ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। এদিকে জোরপূর্বক পশুবোঝাই ট্রাক বিভিন্ন হাটে ঢোকানোর ঘটনায় দারুণ অস্বস্তিতে রয়েছেন ট্রাকচালক ও গরু ব্যবসায়ীরা। ট্রাক ঢোকাতে রাজি না হওয়ায় রাজধানীর অনেক স্থানে ট্রাকচালকদের মারধরের ঘটনা ঘটেছে। চাঁদাবাজদের উৎপাত...