1437492012

সাগরিকার গ্যালারি ছিল একেবারে ফাঁকা। কিন্তু কাউন্টারে টিকেট নেই। বাংলাদেশ ও দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যকার শুধু টেস্ট ম্যাচই নয় টিকেটের লুকোচুরি খেলা ওয়ানডে সিরিজের সময়ও চলেছে।

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার শুরু হয়েছে দুই দেশের মধ্যকার সিরিজের প্রথম টেস্ট ম্যাচ। দর্শকদের জন্য টিকেটের মূল্য ঘোষণা করা হয়েছিল প্রতিদিন পূর্ব গ্যালারি ৫০ এবং পশ্চিম গ্যালারি ১০০ টাকা। প্রথম দিনের শুরুতেই তেমন দর্শক ছিল না সাগরিকার গ্যালারিতে।

বৃষ্টির আশঙ্কা এবং ঈদের ছুটির কারণে অনেক মানুষ এখনো নগরীতে ফিরে আসেনি। ফলে গ্যালারি পূর্ণ হয়ে ওঠেনি। কিন্তু বেলা বাড়ার সাথে সাথে দর্শক চাপও অনেকটা বৃদ্ধি পেতে থাকে। টেস্ট ম্যাচের দর্শকদের জন্য একটি টিকেট কাউন্টারও খোলা হয়েছিল।

সকাল থেকে টিকেট ছাড়া হলেও দুপুর ১২টার মধ্যে প্রথম দিনের সব টিকেট শেষ হয়ে যায়। এতে দূর-দূরান্ত থেকে আসা ক্রিকেটপ্রেমীদের মধ্যে অনেকে টিকেট না পেয়ে শোরগোল করে কাউন্টারের সামনে।

চড়াদামে কালোবাজারিদের হাতে টিকেট পাওয়া গেলেও কাউন্টারে কেন টিকেট থাকবে না ভুক্তভোগীরা তা সুষ্ঠু তদন্তের দাবি জানিয়েছেন। খোঁজ নিয়ে জানা গেছে টিকেট বিক্রির দায়িত্বে যারা ছিলেন তাদের কেউ কেউ কালোবাজারীদের হাতে টিকেট তুলে দিয়েছেন।

টাইগার ও প্রোটিয়াদের মধ্যকার ওয়ানডে ম্যাচেও টিকেট নিয়ে তুঘলকি কান্ড ঘটেছে। এমনকি ওই ম্যাচের সময় সাগরিকায় যথেষ্ট অনিয়ম চোখে পড়ে। কানায় কানায় পূর্ণ গ্যালারিতে সুযোগ বুঝে ওই দিন ভ্রাম্যমান ব্যবসায়ীরা ২০ টাকার পানির বোতল বিক্রি করেছে ১০০ টাকায়। আবার ১০০ টাকার বিরিয়ানির প্যাকেট কিনতে হয়েছে ৩০০ থেকে ৪০০ টাকায়।

পবিত্র রমজান মাস সত্ত্বেও গ্যালারির ব্যবসায়ীদের চড়া দাম নেয়ার ব্যাপারে কেউ কোনো ব্যবস্থা না নেয়ায় ভুক্তভোগীরা তখন ক্ষোভ প্রকাশ করেন। তাছাড়া টেস্ট ম্যাচ চলাকালীন সময়ে দর্শক গ্যালারিতে এইসব ব্যাপারে কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা না ঘটে সেইদিকে সংশ্লিষ্টদের দৃষ্টি রাখতেও দর্শকরা দাবি জানিয়েছেন।

তুনতুন হাসানখেলাধুলা
সাগরিকার গ্যালারি ছিল একেবারে ফাঁকা। কিন্তু কাউন্টারে টিকেট নেই। বাংলাদেশ ও দক্ষিণ আফ্রিকার মধ্যকার শুধু টেস্ট ম্যাচই নয় টিকেটের লুকোচুরি খেলা ওয়ানডে সিরিজের সময়ও চলেছে। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে মঙ্গলবার শুরু হয়েছে দুই দেশের মধ্যকার সিরিজের প্রথম টেস্ট ম্যাচ।...