নিজস্ব প্রতিবেদক ।
রাজধানীর গুলিস্তানে সার্জেন্ট আহাদ পুলিশ বক্স সংলগ্ন একটি মাদ্রাসার ভেতর থেকে আব্দুর রহমান ওরফে জিদান (১২) নামে এক শিশু শিক্ষার্থীকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।
সোমবার ভোরে পুলিশ মদিনাতুল উলুম হাফিজিয়া মাদ্রাসার টয়লেট থেকে তার লাশ উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ মর্গে পাঠায়। পুলিশ বলছে, এ ঘটনায় একই মাদ্রাসার ছাত্র আবু বক্করকে সন্দেহ করা হচ্ছে। ঘটনার পর থেকে সে পলাতক রয়েছে। নিহত জিদানের বাবার নাম হাফেজ উদ্দিন। তাদের গ্রামের বাড়ি ময়মনসিংহের গফরগাঁও থানার জালেরশ্বর গ্রামে।

মাদ্রাসার হাফেজি বিভাগের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ মইনুদ্দিন ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, ভোর সাড়ে ৩টার দিকে তিনি তার কক্ষের পাশের টয়লেটে যাচ্ছিলেন। এ সময় তিনি টয়লেটের কাছের হাউসের পাশে জিদানের নিথর দেহ পড়ে থাকতে দেখেন। সবাইকে তিনি ডেকে তোলেন। কাছে গিয়ে জিদানকে শ্বাসনালি কাটা অবস্থায় পান। পরে পল্টন থানার পুলিশকে খবর দেওয়া হয়।

পল্টন থানার এসআই রেজাউল আলম ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, ওই মাদ্রাসার নুরানি বিভাগের শিক্ষক মোহাম্মদ রাফসান ও শিশুপার্ক কেন্দ্রীয় মসজিদের ইমাম মোহাম্মদ মোজাম্মেলের কাছ থেকে খবর পেয়ে পুলিশ লাশ উদ্ধার করে।
পুলিশ ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানায়, তিন বছর ধরে গুলিস্তানের আহাদ পুলিশ বক্স সংলগ্ন মদিনাতুল উলুম হাফিজিয়া মাদ্রাসায় পড়ছে জিদান। সে কোরআন শরীফের ১৬ পারা মুখস্ত করেছিল। জিদানের বাবার দুই বিয়ে ছিল। প্রথম ঘরে ৩ ভাই ও এক বোন এবং দ্বিতীয় ঘরে দুই ভাই। জিদান দ্বিতীয় ঘরের ছোট ছেলে। তার মা বড় ছেলে আব্দুল্লাহকে নিয়ে গ্রামের বাড়িতে থাকেন। প্রথম স্ত্রী ও সন্তানদের নিয়ে ওয়ারী থানার বিসিসি রোডে থাকেন হাফেজ উদ্দিন। তিনি শান্তিনগর বাজারে মুরগীর ব্যবসা করেন।

একজন ছাত্র ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানায়, বক্কর জিদানকে দিয়ে জামাকাপড় ও বিছানা পরিচ্ছন্ন করাতো। এজন্য সে বক্করের নামে শিক্ষকের কাছে বিচার দেওয়া হয়। এর জেরে সে জিদানকে হত্যা করে পালিয়ে যেতে পারে।
এ বিষয়ে পুলিশের মতিঝিল বিভাগের অতিরিক্ত উপ-কমিশনার ফরিদ উদ্দিন ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, নিহতের বাবা ওই মাদ্রাসার ছাত্র আবু বক্করকে একমাত্র আসামি করে মামলা করেছেন। জিদানকে আবু বক্কর হত্যা করেছে বলে প্রাথমিকভাবে আমরা নিশ্চিত হয়েছি। তবে কি কারণে তাকে হত্যা করা হয়েছে সে বিষয়ে জানা যায় নি। আবু বক্করকে ধরতে পারলে হত্যাকাণ্ডের কারণ জানা যাবে। আবু বকরের গ্রামের বাড়ি বরিশালে। তার বয়স ১৬। তাকে ধরতে পুলিশের একাধিক টিম কাজ শুরু করেছে।
খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

http://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2017/11/HATTA2.jpghttp://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2017/11/HATTA2-300x253.jpgজান্নাতুল ফেরদৌস মেহরিনশেষের পাতা
নিজস্ব প্রতিবেদক । রাজধানীর গুলিস্তানে সার্জেন্ট আহাদ পুলিশ বক্স সংলগ্ন একটি মাদ্রাসার ভেতর থেকে আব্দুর রহমান ওরফে জিদান (১২) নামে এক শিশু শিক্ষার্থীকে গলা কেটে হত্যা করা হয়েছে।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের। সোমবার ভোরে পুলিশ মদিনাতুল উলুম হাফিজিয়া মাদ্রাসার টয়লেট থেকে তার লাশ উদ্ধার করে ঢাকা...