নিজস্ব প্রতিবেদক ।
খালেদা জিয়ার মুক্তি ছাড়া নির্বাচনে না যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন বিএনপি’র শীর্ষনেতারা।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

বিএনপির নেতারা বলেন, বেগম জিয়া ও বিএনপিকে বাইরে রেখে দেশে কোনো নির্বাচন হতে দেয়া হবে না, সেই নির্বাচন কোথাও গ্রহণযোগ্য হবে না।

বেগম জিয়ার সুচিকিৎসা নিশ্চিত করা ও কারামুক্তির দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে আয়োজিত মানববন্ধন কর্মসূচিতে এ মন্তব্য করেন তারা।

এ ছাড়া তফসিল ঘোষণার আগেই সংসদ ভেঙে দিয়ে নির্দলীয় সরকারের অধীনে নির্বাচনের দাবি জানান বিএনপি’র নীতিনির্ধারণী পর্যায়ের নেতারা।

বেগম জিয়ার মুক্তি দাবিতে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে বিএনপি আয়োজিত মানববন্ধন কর্মসূচিতে জনসমাগম যেন রূপ নেয় জনসভায়। রাজধানীর বিভিন্ন এলাকা থেকে বিএনপি ও এর অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী ও সমর্থকরা যোগ দেন এ কর্মসূচিতে।
সোমবার (১০ সেপ্টেম্বর) বেলা ১১টা থেকে কর্মসূচি শুরু হওয়ার কথা থাকলেও আধাঘণ্টা আগেই কর্মীসমাগমে যান চলাচল অনেকটাই বন্ধ হয়ে যায় তোপখানা রোডে।

দলীয় চেয়ারপারসনের মুক্তির দাবি সম্বলিত ব্যানার, প্ল্যাকার্ড ও ফেস্টুন হাতে স্লোগান দেয় কর্মী-সমর্থকরা।

জনাকীর্ণ এ কর্মসূচিতে যোগ দেন দলটির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরসহ শীর্ষনেতারা। বেগম জিয়াকে রাজনৈতিক উদ্দেশে কারাবন্দী করে রাখা হয়েছে বলে মন্তব্য করেন তারা।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য নজরুল ইসলাম খান বলেন, ষড়যন্ত্রের অংশ হিসেবে বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে আবদ্ধ করা হয়েছে। আমরা বেগম খালেদা জিয়ার মুক্তি চাই।

তফসিল ঘোষণার আগেই সংসদ ভেঙে দিয়ে নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচনের ব্যবস্থা করার দাবি জানান দলটির শীর্ষনেতারা।

বিএনপি’র স্থায়ী কমিটির সদস্য ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন বলেন, সংসদ ভেঙে আগামী নির্বাচন করতে হবে। সারা বিশ্ব সবার অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন চায়। বেগম খালেদা জিয়া ও বিএনপিকে ছাড়া কোনো অংশগ্রহণমূলক নির্বাচন হতে পারে না, হতে দেয়া হবে না।

জনগণ আওয়ামী লীগ থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছে মন্তব্য করে দলের মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেন, গ্রহণযোগ্য নির্বাচন চাইলে অবশ্যই বেগম জিয়াকে মুক্ত করে দিতে হবে।

তিনি বলেন, এই সরকারকে চলে যেতে হবে। তাদের দিন শেষ হয়ে এসেছে। আওয়ামী লীগ দেউলিয়া রাজনৈতিক দলে পরিণত হয়েছে। দেশনেত্রী কারাগারে থাকলে এ দেশে কোনো নির্বাচন গ্রহণযোগ্য হবে না। দেশনেত্রীকে আগে মুক্তি দিলে বোঝা যাবে সরকার সুষ্ঠু নির্বাচন চায়।

বেগম জিয়ার মুক্তি ও নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে নির্বাচন নিয়ে টালবাহানা হলে জাতীয় ঐক্য গড়ে তা আদায় করা হবে বলেও মন্তব্য করেন বিএনপি নেতারা।
খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

http://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2018/09/312.jpghttp://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2018/09/312-300x254.jpgশুভ সমরাটজাতীয়
নিজস্ব প্রতিবেদক । খালেদা জিয়ার মুক্তি ছাড়া নির্বাচনে না যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন বিএনপি’র শীর্ষনেতারা।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের। বিএনপির নেতারা বলেন, বেগম জিয়া ও বিএনপিকে বাইরে রেখে দেশে কোনো নির্বাচন হতে দেয়া হবে না, সেই নির্বাচন কোথাও গ্রহণযোগ্য হবে না। বেগম জিয়ার সুচিকিৎসা নিশ্চিত করা ও কারামুক্তির দাবিতে...