1437389422

জেলার কেন্দুয়া উপজেলার পৌর শহরে ও কান্দিউড়া ইউনিয়নের জালালপুর গ্রামে পৃথক সংঘর্ষে পুলিশের দুই সদস্যসহ অর্ধশতাধিক লোক আহত হয়েছেন। রবিবার বেলা চারটার দিকে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানায়, উপজেলার মাসকা ইউনিয়নের রামচন্দ্রপুর খেলার মাঠে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে সাউদপাড়া গ্রামের সোহাগ (১১) এবং সলফ কমলপুর গ্রামের তৌহিকুল (১২) খেলার মাঠে বিবাদে জড়িয়ে পড়ে। এরই জের ধরে সলপ কমলপুরের পক্ষে আইথর এবং সাউদপাড়ার পক্ষে বাদে আঠারবাড়ি ও তুরুকপাড়ার লোকজন লাঠিসোঁটা ও দেশীয় ধারালো অস্ত্র নিয়ে আইথর গ্রামের সামনের মাঠে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পাঁচ রাউন্ড টিয়ারশেল ছুড়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ সময় সংঘর্ষকারীদের ইট পাটকেলে নজরুল ও মান্নান নামের দুই পুলিশ সদস্যসহ উভয় পক্ষের অন্তত ১৫ জন আহত হন। এ ঘটনায় পুলিশ সাতজনকে আটক করেছে।

অপরদিকে উপজেলার কান্দিউড়া ইউনিয়নের জালালপুর গ্রামে আজিজুল ইসলাম ভূঞা ও আসলামুল হক ভূঞা গ্রুপের মধ্যে আধিপত্য বিস্তার ও পূর্ব শত্রুতার জের ধরে রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে উভয়পক্ষের অন্তত ৪০ জন আহত হয়েছেন। আশংকাজনক অবস্থায় আজিজুল, রতন, মানিক, শাহ আলম, সাইফুল, হেলিম, মোতালিব, জাহাঙ্গীর, এনামুল, মাসুদ ও বকুলকে ময়মনসিংহ মেডিক্যাল হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। আহত অন্যরা স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

জানা গেছে, রবিবার আসলামুল হকের লোকজন আজিজুল ইসলাম গ্রুপের আহাদ মিয়ার ছেলে বাবুকে মারপিট করে। এতে আজিজুল ইসলাম প্রতিবাদ জানাতে গেলে আসলামুল হকের লোকজন তাকেও মারধর করে। পরে আজিজুল ও আসলামের লোকজন রক্তক্ষয়ী সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে। পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

অপরদিকে আসলামুল হক রোগী বকুল মিয়াকে নিয়ে কেন্দুয়া উপজেলা হাসপাতালে গেলে আজিজুলের লোকজন তার উপর হামলা চালায়।

কেন্দুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) অভিরঞ্জন দেব ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, এসব ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোন মামলা হয়নি।

ওয়াজ কুরুনীস্বদেশের খবর
জেলার কেন্দুয়া উপজেলার পৌর শহরে ও কান্দিউড়া ইউনিয়নের জালালপুর গ্রামে পৃথক সংঘর্ষে পুলিশের দুই সদস্যসহ অর্ধশতাধিক লোক আহত হয়েছেন। রবিবার বেলা চারটার দিকে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানায়, উপজেলার মাসকা ইউনিয়নের রামচন্দ্রপুর খেলার মাঠে ফুটবল খেলাকে কেন্দ্র করে সাউদপাড়া গ্রামের...