বিনোদন প্রতিবেদক ।
১৯৯৮ সালে কৃষ্ণসার হরিণ হত্যা মামলায় নিম্ন আদালতের পাঁচ বছরের কারাদণ্ডের সাজাকে চ্যালেঞ্জ করে যোধপুর আদালতে সালমান খানের আবেদনের শুনানি ১৭ জুলাই পর্যন্ত স্থগিত করেছে আদালত। খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

আজ সোমবার আদালতে হাজিরা দেন সালমান। তার আইনজীবী মহেশ বরা শুনানি শুরুর জন্য সময়ের আবেদন করেন। পরে দায়রা আদালতের বিচারপতি চন্দ্রকুমার সঙ্গারা শুনানি স্থগিত করে দেন।

এদিকে মামলায় হাজিরা দেয়ার জন্য রবিবার মুম্বাই থেকে যোধপুর যান সালমান। তার সঙ্গে ছিলেন পরিবারের লোকজন। শুনানি স্থগিত হয়ে যাওয়ার কথা শুনে আদালত ছেড়ে চলে যান বলিউডের এই জনপ্রিয় অভিনেতা।

১৯৯৮ সালের ১ অক্টোবর রাতে হাম সাথ সাথ হ্যায় ছবির শ্যুটিংয়ের ফাঁকে সালমান, সইফ আলি খান, নীলম ও সোনালি বেন্দ্রের বিরুদ্ধে দুটি কৃষ্ণসার হত্যার অভিযোগ ওঠে। এই মামলায় ৫ এপ্রিল সালমানের পাঁচ বছরের কারাদণ্ডের সাজা হয়। দু’রাত যোধপুরের কারাগারে থাকার পর জামিনে মুক্তি পান তিনি।
খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

http://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2018/05/82.jpghttp://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2018/05/82-300x300.jpgজান্নাতুল ফেরদৌস মেহরিনবিনোদন
বিনোদন প্রতিবেদক । ১৯৯৮ সালে কৃষ্ণসার হরিণ হত্যা মামলায় নিম্ন আদালতের পাঁচ বছরের কারাদণ্ডের সাজাকে চ্যালেঞ্জ করে যোধপুর আদালতে সালমান খানের আবেদনের শুনানি ১৭ জুলাই পর্যন্ত স্থগিত করেছে আদালত। খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের। আজ সোমবার আদালতে হাজিরা দেন সালমান। তার আইনজীবী মহেশ বরা শুনানি শুরুর জন্য...