hhhhhhhh
কুমিল্লাা হাই স্কুলে শান্তিপূর্ণ ভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে প্রভাতি বালিকা ও দিবা বালক শাখার স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন ২০১৫ । নির্বাচনে ৮ টি পদের জন্যে বালক বিভাগে ১৬ জন এবং বালিকা বিভাগে ১৯ জন ছাত্রি প্রতিদ্বন্দিতা করে।সকাল ১০ টা থেকে বেলা ২ টা পর্যন্ত প্রতিটি শ্রেনী কক্ষে ছাত্র ও ছাত্রীদের পৃথক ভাবে এই ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়।নির্বাচন পরিচালনার জন্যে ছাত্র ও ছাত্রীদের মধ্য থেকে নির্বাচন কমিশনার ,প্রিজাইডিং অফিসার ও পোলিং অফিসার নিযুক্ত করা হয়।৬ষ্ঠ থেকে ১০ম শ্রেনীর ছাত্র ও ছাত্রীরা ভোটার ও প্রার্থী হতে পেরেছে। বালক শাখায় ভোট প্রয়োগ করে ১৭৯৩ জন ও বালিকা শাখায় ১৪৮৫ জন । সম্পূর্ণ গণতান্ত্রিক পরিবেশে ব্যালট ও ভোটের বাক্স এনে এই ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। সদর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারে একে এম জাহাঙ্গীর আলম ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান,সারাদেশের ন্যায় কুমিল্লা সদর উপজেলায় পাইলট প্রকল্প হিসেবে শুধুমাত্র কুমিল্লা হাই স্কুল,আফতাব উদ্দিন দাখিল মাদ্রাসা,ও সিমপুর আনসর আলী ভোকেশনাল ইনস্টিটিউটে এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। এর মাধ্যমে মাধ্যমিক স্তরের শিক্ষার্থীরা ভোট দিয়ে তাদের মধ্য থেকে নেতা নির্বাচিত করবে। কুমিল্লা হাই স্কুলের প্রধান শিক্ষক মোঃ আবদুল কাদের ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচনে জাতীয় নির্বাচনের মতোই ব্যালট বাক্স, ব্যালট পেপার, ভোট কেন্দ্র ছিল। ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা ভোটার তালিকাভূক্ত হয়ে নির্বাচনে প্রার্থী হতে পেরেছে। তিনি বলেন, ‘প্রত্যেক ভোটার প্রত্যেক শ্রেণীতে একটি ও সর্বোচ্চ তিনটি শ্রেণীতে দুটি করে মোট ৮টি ভোট দিয়েছে। প্রত্যেক শ্রেণী থেকে একজন করে পাঁচটি শ্রেণী থেকে ৫ জন এবং পরবর্তী সর্বোচ্চ ভোটপ্রাপ্ত তিন শ্রেণী থেকে আরো ৩ জন নিয়ে ৮ জনের স্টুডেন্টস কেবিনেট গঠিত হবে। এ কেবিনেটের মেয়াদ হবে এক বছর। দুপুর ২ টার পর ভোট গণনা করা হয়।

ওয়াজ কুরুনীস্বদেশের খবর
কুমিল্লাা হাই স্কুলে শান্তিপূর্ণ ভাবে অনুষ্ঠিত হয়েছে প্রভাতি বালিকা ও দিবা বালক শাখার স্টুডেন্ট কেবিনেট নির্বাচন ২০১৫ । নির্বাচনে ৮ টি পদের জন্যে বালক বিভাগে ১৬ জন এবং বালিকা বিভাগে ১৯ জন ছাত্রি প্রতিদ্বন্দিতা করে।সকাল ১০ টা থেকে বেলা ২ টা পর্যন্ত প্রতিটি শ্রেনী কক্ষে ছাত্র ও ছাত্রীদের...