1444658978.gif
যৌতুকের দাবিতে কুমিল্লায় কনিকা রানী দাস (২০) নামে এক নববধূকে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।

রবিবার গভীর রাতে জেলার দাউদকান্দি পৌর এলাকার সাহাপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ওই নববধূর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। সোমবার বিকালে লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

জানা গেছে, জেলার দাউদকান্দি আদর্শ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয়ের সমাজ বিজ্ঞানের সহকারী শিক্ষক রুহিদাস বিশ্বাসের সঙ্গে প্রায় তিন মাস আগে নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার সাহাপুর গ্রামের সুবোধ দাসের মেয়ে কনিকা দাসের বিয়ে হয়। বিয়ের কিছুদিন পর থেকে রুহিদাস তার স্ত্রীকে বাবার বাড়ি থেকে পাঁচ লাখ টাকা যৌতুক এনে দেয়ার জন্য চাপ সৃষ্টি করে। এরই মধ্যে কনিকা বাবার বাড়ি থেকে এক লাখ টাকা এনে দেন। এরই মধ্যে দাবিকৃত বাকি চার লাখ টাকা না দেয়ায় পারিবারিক কলহ দেখা দেয়। এক পর্যায়ে ওই টাকা এনে দিতে অস্বীকার করে। এরই জের ধরে রবিবার দিবাগত রাতে রুহিদাস স্ত্রী কনিকাকে মারধর করলে তিনি অজ্ঞান হয়ে যান। এ সময় হাতের রগ কেটে দিলে অতিরিক্ত রক্তক্ষরণে কনিকা মারা যান।

নিহতের বাবা সুবোধ চন্দ্র দাসের অভিযোগ, যৌতুকের জন্যই কনিকাকে স্বামীসহ পরিবারের লোকজন নির্মমভাবে হত্যা করেছে।

দাউদকান্দি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আবু ছালাম মিয়া ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, এ ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

http://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2015/10/1444658978.gif.jpghttp://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2015/10/1444658978.gif.jpgওয়াজ কুরুনীস্বদেশের খবর
যৌতুকের দাবিতে কুমিল্লায় কনিকা রানী দাস (২০) নামে এক নববধূকে হত্যা করা হয়েছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। রবিবার গভীর রাতে জেলার দাউদকান্দি পৌর এলাকার সাহাপাড়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। পুলিশ ওই নববধূর লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। সোমবার বিকালে লাশ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা...