কুমিল্লা অফিস । মহানগর প্রতিনিধি
কুমিল্লা নগরীর ইপিজেড এলাকায় বহুতলা ভবন থেকে পড়ে পলাশ (২৮) নামের এক নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। পলাশ নীলফামারী সদর উপজেলার বসুনিয়াপাড়া গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

এদিকে ওই এলাকায় নিরাপত্তা বেষ্টনী না দিয়ে ঝুঁকিপূর্ণ অবস্থায় বহুতল ভবন নির্মাণের কারণে স্থানীয় লোকজন ক্ষোভে ফুঁসে ওঠেছেন। তারা এ ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও বিচার দাবি করেছেন। দুপুরে এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত থানায় মামলা দায়েরের প্রক্রিয়া চলছিল বলে পুলিশ জানিয়েছে।

ভবনের নির্মাণ শ্রমিকসহ স্থানীয় লোকজন ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, জেলার চৌদ্দগ্রাম উপজেলার জগমোহনপুর এলাকার মৃত আলী আকবরের ছেলে কাতার প্রবাসী আলী মেহেদী খোকন ১৩তলা একটি ভবন (খোকন টাওয়ার) তৈরি করছেন।

মঙ্গলবার সকালে শ্রমিক পলাশ নির্মাণাধীন ওই ভবনের ১১তলায় কাজ করছিলেন। নিরাপত্তা বেষ্টনীবিহীন অরক্ষিত ওই বহুতল ভবনে নির্মাণ কাজ করার সময় তিনি নিচে পড়ে যান। ঘটনাস্থলে তার মৃত্যু হয়। তবে তাকে অ্যাম্বুলেন্সে করে কুমিল্লা মেডিকেল কলেজ হাসপাতলে নিয়ে যাওয়া হয়। পুলিশ সেখান থেকে লাশ উদ্ধার করে।

নির্মাণাধীন ওই ভবনের মালিক পক্ষের কাউকে ঘটনাস্থলে পাওয়া যায়নি। এ ব্যাপারে ভবন নির্মাণ কাজ পরিচালনাকারী ইব্রাহিম খলিল ও শামীমের মোবাইল ফোনে একাধিকবার কল করা হলেও রিসিভ না করায় বক্তব্য জানা যায়নি।

দুপুর ১টার দিকে সদর দক্ষিণ মডেল থানার ওসি মো. আদিল মাহমুদ ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমকে জানান, লাশ পুলিশ হেফাজতে রয়েছে এবং এ বিষয়ে মামলা প্রক্রিয়াধীন আছে।
খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের।

http://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2018/07/220.jpghttp://crimereporter24.com/wp-content/uploads/2018/07/220-300x300.jpgজান্নাতুল ফেরদৌস মেহরিনস্বদেশের খবর
কুমিল্লা অফিস । মহানগর প্রতিনিধি কুমিল্লা নগরীর ইপিজেড এলাকায় বহুতলা ভবন থেকে পড়ে পলাশ (২৮) নামের এক নির্মাণ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। পলাশ নীলফামারী সদর উপজেলার বসুনিয়াপাড়া গ্রামের রফিকুল ইসলামের ছেলে।খবর ক্রাইম রিপোর্টার ২৪.কমের। এদিকে ওই এলাকায় নিরাপত্তা বেষ্টনী না...