rubeda-salam-290x193
ইচ্ছে আর একাগ্রতা থাকলে কীভাবে একটা একটা করে ধাপ পেরিয়ে উন্নতির শিখরে পৌঁছে যাওয়া যায়, তার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত ড. রুবেদা সালাম। কাশ্মীরের এই প্রথম নারী আইপিএস কর্মকর্তা আইএএস হওয়ার স্বপ্ন নিয়ে এগোতে শুরু করেছিলেন। এরই মাঝে পাশ করেন এমবিবিএস। ইউপিএসসি-র পরীক্ষায় পাশ করে গত আট মাস ধরে তিনি ভারতের চেন্নাইয়ের সহকারি পুলিশ কমিশনার (এসিপি)।

তবে, এগিয়ে চলার পথটা সেখানেই থামিয়ে দেননি রুবেদা। আরও উচ্চপদে যেতে আবার বসেন ইউপিএসসি পরীক্ষায়। এবারও তাঁকে নিরাশ হতে হয়নি। খুব শিগগিরই হাতে আসবে নতুন অ্যাপয়েন্টমেন্ট লেটার। রুবেদা এখন গোটা ভারতের গর্ব। মহিলাদের গর্ব। খাঁকি পোশাক পরা রুবেদা সালাম এখন অনুপ্রেরণার আরেক নাম।

কাশ্মীর উপত্যকার কুপওয়াড়ার মেয়ে। ছোটবেলা থেকেই তাঁর চোখে আইএএস অফিসার হওয়ার স্বপ্ন এঁকে দিয়েছিলেন তাঁর বাবা। ২০১৩ সালে প্রথমবার ইউনিয়ন পাবলিক সার্ভিস কমিশন ক্লিয়ার করেন রুবেদা। তবে তার আগেই অবশ্য শ্রীনগরের একটি মেডিক্যাল কলেজ থেকে তিনি এমবিবিএস পাশ করেন।

মেডিসিন নিয়ে পড়া চলতে চলতেই কাশ্মীর স্টেট অ্যাডমিনিস্ট্রেটিভ পরীক্ষা দেন রুবেদা, সফলও হন। তবে, মেডিসিন নিয়ে আর পোস্ট গ্র্যাজুয়েশনের কথা ভাবেননি রুবেদা। বরং তিনি পুরোদমে শুরু করে দেন ইউপিএসসি পরীক্ষার পড়াশোনা। প্রথম বারেই আসে সাফল্য। ইন্ডিয়ান পুলিশ সার্ভিসে সুযোগ পান ভূস্বর্গের এই কন্যা। কঠিন প্রশিক্ষণ চলে হায়দরাবাদে। অক্লান্ত পরিশ্রমের পর চেন্নাইয়ের এসিপি হিসেবে নিযুক্ত হন।

সূর্য ওঠার পরই দিন শুরু, আর শেষ যে কখন তা কেউ জানে না। সপ্তাহে তিনদিন শহরে রাউন্ড দেন রাতভর। এরইমধ্যে আবার ইউপিএসসি পরীক্ষার জন্য চলতে থাকে পড়াশোনা। আর ডিপার্টমেন্টাল পরীক্ষার জন্যও তৈরি হতে থাকেন। এসবের মাঝেই রুবেদা নিজের পেপার প্রেজেন্ট করেন ইয়ুথ-টুয়েন্টি সামিটে। জি-টোয়েন্টি সামিটেরই অঙ্গ এই ইয়ুথ-টোয়েন্টি সামিট। প্রত্যেক দেশ থেকে একজন ইয়ুথকে নির্বাচিত করা হয় প্রেজেন্টেশন দেওয়ার জন্য। ভারত থেকে নির্বাচিত হয়ে গত বছর সিডনির সামিটে অংশ নেন কাশ্মীর কন্যা। নিজের উদাহরণ দিয়ে মেয়েদের অনুপ্রাণিত ও উদ্বুব্ধ করতে বিভিন্ন অনুষ্ঠানে মোটিভেশনাল স্পিচও দেন রুবেদা।

পড়াশোনার পাশাপাশি খেতে ও শরীরচর্চা করতে ভালোবাসেন রুবেদা সালাম। নতুন নতুন রেস্তোরাঁ এক্সপ্লোর করেন। আর অবসর সময়ে কবিতা পড়েন, লেখেনও। তাঁর ভাবনা-চিন্তায় রসদ জোগায় রবার্ট ফ্রস্ট, উইলিয়াম ওয়ার্ডসওয়ার্থ। ক্যারিয়ার ও পরিবারের মধ্যে ভারসাম্য রক্ষা করে চলা তাঁর জীবনের অন্যতম লক্ষ্য। এককথায় রুবেদা সালাম যেন এক মহানায়িকা, রোল মডেল। ইচ্ছে শক্তি, একাগ্রতা, একনিষ্ঠতা, অনুপ্রেরণা, স্থির লক্ষ্য-এসব কিছুরই সমার্থক রুবেদা সালাম।

হীরা পান্নাআন্তর্জাতিক
ইচ্ছে আর একাগ্রতা থাকলে কীভাবে একটা একটা করে ধাপ পেরিয়ে উন্নতির শিখরে পৌঁছে যাওয়া যায়, তার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত ড. রুবেদা সালাম। কাশ্মীরের এই প্রথম নারী আইপিএস কর্মকর্তা আইএএস হওয়ার স্বপ্ন নিয়ে এগোতে শুরু করেছিলেন। এরই মাঝে পাশ করেন এমবিবিএস। ইউপিএসসি-র পরীক্ষায় পাশ করে গত আট মাস ধরে তিনি ভারতের...